কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে ফতোয়া দেবে দুবাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   |   ০৫:২৩, অক্টোবর ৩১, ২০১৯

অনলাইনে মুহূর্তেই ফতওয়া জারি করতে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহারের চর্চা করছে দুবাই। এ বিষয়ে একটি চলমান প্রকল্পকে গতিশীল করার জন্য এই ধরণের চর্চা করা হচ্ছে।

দাতব্য প্রতিষ্ঠান এবং ঋণ কার্যক্রমে সম্পৃক্তদের সঠিক দিকনির্দেশনার জন্য সরকারের ইসলামিক বিষয় ও দাতব্য কার্যক্রম বিভাগ এর ভার্চুয়াল ইফতা প্রকল্পের আওতায় এ চর্চা করা হচ্ছে।

ভার্চুয়াল ফতোয়া পদ্ধতিতে ভার্চুয়াল মুফতি নামে একটি ডাটাবেজ থাকবে। এ ডাটাবেজে ইসলামিক আইন অনুযায়ী হাজার হাজার প্রশ্নের উত্তর সেট করা থাকবে। ফলে কেউ চাইলে তার প্রয়োজনীয় বিষয়ে ফতোয়া এখান থেকে জেনে নিতে পারবেন।

ইতোপূর্বে বিভিন্ন সংস্থা ও সংগঠন অনলাইনভিত্তিক অনেক ফতোয়ার ব্যবস্থাপনা চালু করেছেন তবে সেখানে সর্বোচ্চ একশটি পর্যন্ত সম্ভাব্য উত্তর পাওয়া যায়। বর্তমানে সরকারি ব্যবস্থাপনায় উদ্ভাবিত পদ্ধতিতে হাজার হাজার সম্ভাব্য উত্তর বিশ্লেষণ করে সঠিক উত্তরটি পাওয়া যাবে।

দুবাইয়ে প্রধান মুফতি মোহাম্মদ আল কুবাইসি বলেন, মুসলমানদের মধ্যে বিশেষ করে যারা পর্যবেক্ষক তাদের সবেচেয় গুরুত্বপূর্ণ কাজ হলো তারা যে কোন বিষয়ের মুখোমুখি হলে সে ব্যাপারে সঠিক ইসলামিক মতামত জানা।

অনেক ক্ষেত্রেই এই মতামত বা উত্তর জানার জন্য বেশি সময় অপেক্ষা করা যায় না তাই অনলাইনে কম সময়ে পাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, প্রকল্পটি চালু হওয়ার আগে যদি কারো জরুরি কোন ফতোয়া দরকার হয় তবে দায়িত্বশীলদের ব্যক্তিগতভাবে জিজ্ঞেস করতে পারবেন কিংবা অনলাইনে প্রশ্ন করে তিন দিন অপেক্ষা করতে হবে। চালু হলে সপ্তাহের সাত দিনই ২৪ ঘন্টা এই সেবাটি পাওয়া যাবে।

মুফতি বলেন, প্রথমিকভাবে আমরা নামাজ সংক্রান্ত প্রশ্নোত্তর অন্তর্ভূক্ত করছি। শুধু নামাজ সংক্রান্ত যে কোন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে। এ পর্যন্ত নামাজ সংক্রান্ত ৪০০০ প্রশ্নের উত্তর সম্বলিত একটি ডাটাবেজ যুক্ত করা হয়েছে। ধীরে ধীরে আমরা যাকাত, ঋণ, বাণিজ্য, সুদ, শেয়ার বাণিজ্য ইত্যাদি বিষয়ও যুক্ত করবো।

ফতোয়া আর্কাইভের প্রধান মোহাম্মদ আল কামালি বলেন, এখান থেকে সঠিক ফতোয়া পাওয়া যাবে। যদি কোন সময় কোন উত্তর ভুল আসে বা মেশিন যদি কোন কারণে উত্তর দিতে না পারে তবে তা আমরা সাথে সাথে সংশোধন করে দেবো এবং পরে উত্তর পাওয়া যাবে।

তবে এই ভার্চুয়াল পদ্ধতিটির সীমাবদ্ধতা হলো সংবেদনশীল বিষয়ে বিস্তারিত উত্তর এখানে পাওয়া যাবে না।

গত বছরের জুনে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফতোয়া কাউন্সিল তৈরি হয়েছিল। আমিরাত ফতোয়া কাউন্সিল হ’ল ফতোয়ার আনুষ্ঠানিক রেফারেন্স এবং ফতোয়া সংক্রান্ত সমস্ত কাজের তদারকি করে থাকে।

সূত্র: দ্য ন্যাশনাল
এসএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর