দুই অধিনায়কের স্নায়ুচাপের যুদ্ধ

নিউজ ডেস্ক   |   ০৩:০৬, নভেম্বর ০৭, ২০১৯

একটি ম্যাচ অথচ ফলাফল অনেক। তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিকে ঘিরে নতুন এক মাত্রা যোগ হয়েছে ক্রিকেটপাড়ায়। ম্যাচের আগে দুই দলের অধিনায়কের মুখেও শোনা গেলো সেই কথা। বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ চোখে এই জিততে হলে নিজেদের সেরাটা দেয়ার বিকল্প নেই। অন্যদিকে স্বাগতিক ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মার কাছে আজকের ম্যাচ স্পেশাল। টাইগারদের হারাতে সব শক্তি প্রয়োগ করার কথাও বলেন ভারতীয় দলপতি। তাই আজকের ম্যাচটির দিতে তাকিয়ে থাকবে দুই দেশের ক্রিকেট ভক্তরা। তাই ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে দুই অধিনায়কের বক্তব্য নিয়ে ডেস্ক রিপোর্ট—

‘ভারতকে হারানো কঠিন হবে’
র্যাংকিংয়ে পাঁচে থাকা ভারতকে তাদেরই মাঠেই নয়ে থাকা বাংলাদেশ হারিয়েছে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভারতের বিপক্ষে পেয়েছে প্রথম জয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও ভারতের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে প্রথম জয় বাংলাদেশের। এবার ভারতে প্রথম সিরিজ জয়ের সুযোগ মাহমুদউল্লাহদের সামনে। এর আগে গতকাল শেষ অনুশীলন করেছেন টাইগাররা। পরে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

তিনি জানান, ‘উইকেট দেখে প্রয়োজনে একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে।’ প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দিল্লিতে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে তারা। ব্যাকফুটে টিম ইন্ডিয়া। সুযোগটা কাজে লাগিয়ে সিরিজ জয়ে চোখ লাল-সবুজ জার্সিধারীদের।

মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘আমরা প্রথম ম্যাচ জিতেছি। এটা আমাদের আত্মবিশ্বাস জোগাবে। তবে আমরা বসে নেই। সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। সেরাটা অনুশীলনে দেয়ার চেষ্টা করেছে।’ সিরিজে ফিরতে মরিয়া ভারত। এ জন্য দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের বিকল্প দেখছে না তারা। সর্বোচ্চ চেষ্টা করার কথা জানিয়েছেন মেন ইন ব্লুরা।

তিনি বলেন, ‘তারা জিততে মুখিয়ে আছে এ কথা সত্য। তবে আমরা ছেড়ে দেবো না। আমরা ও মরিয়া হয়ে আছি জেতার জন্য। কারণ, আমাদের সামনে অনেক বড় সুযোগ। এ সিরিজ জিততে পারলে আমাদের অনেক বড় অর্জন হবে।’ প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। সাধারণত এ পরিস্থিতি থেকে উইনিং কম্বিনেশন ভাঙে না কোনো দল। তবে টাইগার একাদশে পরিবর্তন হতে পারে।

টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘আপাতত দলে বদল আসার সম্ভাবনা নেই। আমরা প্রথমে রাজকোটের উইকেট দেখব। এর পর সিদ্ধান্ত নেবো। প্রয়োজনে একাদশ পরিবর্তন হলেও হতে পারে। অন্যথায় উইনিং কম্বিনেশন ধরে রাখার চেষ্টা করব। অতীতে এ মাঠে গড়ে ১৭০-১৮০ রান উঠছে। তাই উইকেট দেখে সিদ্ধান্ত নেবো। দরকার হলে অতিরিক্ত ব্যাটসম্যান নিয়ে মাঠে নামবো।’

পরিবর্তনের ইঙ্গিত রোহিতের
বাংলাদেশের বিপক্ষে এই ধাক্কায় ঘুরে দাঁড়ানোর পথ খুঁজছে স্বাগতিকরা। রাজকোটের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে তাই বোলিং আক্রমণে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। দিল্লির ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়েছে বাংলাদেশের ভারত সফর। মাঠের বাইরের নানা ইস্যুতে টালমাটাল দেশের ক্রিকেটকে স্বস্তির এক জয় এনে দিয়েছেন মুশফিকুর রহিমরা। ভারতকে তাদেরই মাটিতে হারিয়ে টি-টোয়েন্টিতে দলটির বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়েছে টাইগাররা। ৭ উইকেটে হেরে ব্যাকফুটে চলে যাওয়া স্বাগতিকরা রাজকোটে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া।

দিল্লির ম্যাচে ভারত দুই বিশেষজ্ঞ পেসার ও মিডিয়াম পেসার শিবম দুবের সঙ্গে একাদশে রেখেছিল তিন স্পিনার। যদিও দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে একাদশে বোলিং আক্রমণে পরিবর্তন আসার ইঙ্গিত দিয়েছেন বিরাট কোহলির অনুপস্থিতিতে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া রোহিত।

গতকাল সংবাদ সম্মেলনে ভারতীয় অধিনাযক বলেন, ‘আমাদের ব্যাটিং ভালোই মনে হয়েছে। তাই আমার মনে হয় না ব্যাটিংয়ে কোনো পরিবর্তন দরকার আছে। তবে আমরা আগে পিচ বিশ্লেষণ করতে চাই এবং তার ওপর ভিত্তি করেই নিশ্চিত করতে চাই দল আসলে কেমন হবে।’ দিল্লিতে খলিল আহমেদ ১ উইকেট পেলেও ৪ ওভারে খরচ করেছেন ৩৭ রান। তাছাড়া ১৯তম ওভারে তার বোলিংয়েই বাংলাদেশের জয় একরকম নিশ্চিত হয়ে যায়। মুশফিক এই পেসারকে টানা চার বলে বাউন্ডারি হাঁকান। রাজকোটের ম্যাচে তাই খলিলের জায়গায় দেখা যেতে পারে শারদুল ঠাকুরকে।

সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামের পিচ বিবেচনা করেই একাদশে সাজানোর পক্ষে তিনি, ‘শেষ ম্যাচে (পেস বোলিং) কম্বিনেশন সাজানো হয়েছিল দিল্লির পিচের ওপর ভিত্তি করে। গতকাল আমরা আবারো পিচ দেখবো এবং চিন্তা করব বোলিং লাইন-আপ নিয়ে আমাদের কী করতে হবে।’ একটা বিষয় অবশ্য নিশ্চিত করেছেন রোহিত, রাজকোটে বাংলাদেশ-ভারত পাচ্ছে ‘ভালো’ উইকেট।

ভারতীয় অধিনায়কের বক্তব্য, ‘পিচ দেখে ভালো মনে হচ্ছে। রাজকোট সবসময় ভালো ব্যাটিং সহায়ক উইকেট দিয়ে থাকে, একই সঙ্গে বোলাররাও সহায়তা পায়। ভালো পিচই হবে। আমি নিশ্চিত দিল্লির চেয়ে ভালো (উইকেট) হবে।’ ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াইয়ে ভারতের ‘অ্যাপ্রোচ’ বদলানোর কথাও শোনালেন রোহিত, ‘কৌশল কী হবে, আমি আপনাদের বলব না, তবে আমি এটা নিশ্চিত করছি, আমাদের অ্যাপ্রোচে বদল আসবে।’

এসটিএমএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর