আগামী মাস থেকে মাস্টার ট্রেইনারদের প্রশিক্ষণ শুরু

প্রিন্ট সংস্করণ॥বেলাল হোসেন   |   ১২:২৩, নভেম্বর ০৮, ২০১৯

প্রাথমিক শিক্ষকদের ইংরেজিতে দক্ষ করে তুলতে প্রশিক্ষণ দেবে সরকার। সারা দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে কমপক্ষে দুইজন করে এক লাখ ৩০ হাজার শিক্ষককে ইংরেজি শিক্ষার প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

সম্প্রতি ইংরেজি শিক্ষায় দক্ষতা বৃদ্ধিতে একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। ৪৬ কোটি ৬৮ লাখ ৬৯ হাজার টাকা এ প্রকল্পে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তর। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলতি বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে শুরু হবে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচির সাব-কম্পোনেন্ট এক দশমিক ৫-এর অন্তর্ভুক্ত ‘সিস্টেমেটিক ইংলিশ টিচিং ফর প্রাইমারি টিচার্স’র আওতায় ব্রিটিশ কাউন্সিলের সঙ্গে ‘ট্রেইনিং অব দ্যা মাস্টার্স ট্রেইনার্স ইন ইংলিশ’ (টিএমটিই) সেবা ক্রয়সংক্রান্ত চুক্তি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

প্রকল্পের প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে— চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৪) শীর্ষক প্রকল্পটি ২০১৮ সালের ২২ মে একনেক সভায় বাস্তবায়ন হয়। সেখানে প্রকল্পের মেয়াদ ২০১৮ খ্রিস্টাব্দের জুলাই থেকে ২০২৩ খ্রিস্টাব্দের জুন পর্যন্ত অনুমাদিত হয়। এ প্রকল্পের সাব-কম্পানেন্ট এক দশমিক ৫-এ সিস্টেমেটিক ইংলিশ টিচিং ফর প্রাইমারি টিচার্স’র আওতায় সারা দেশে প্রতিটি বিদ্যালয় থেকে কমপক্ষে ২ জন করে এক লাখ ৩০ হাজার শিক্ষককে ইংরেজি শিক্ষাদানের দক্ষতা বৃদ্ধি করা হবে।

এ লক্ষে প্রকল্পের ডিপিপি অনুসারে ব্রিটিশ কাউন্সিলের মাধ্যমে অঞ্চলভিত্তিতে দেশের ১৫টি পিটিআইতে এক হাজার ৯৮০ জন (মূল ডিপিপিতে এক হাজার ১৪০ জন রয়েছে) মাস্টার ট্রেইনারদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে পুল গঠন করা হবে।

ডিপিপি অনুযায়ী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য একক উৎসভিত্তিক ক্রয় পদ্ধতিতে (সিঙ্গেল সোর্স সিলেকশন মেথড) ব্রিটিশ কাউন্সিলের অনুকূলে আরএফপি পাঠানো হলে ওই প্রতিষ্ঠান আনুষ্ঠানিক প্রস্তাবনা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাবে।

এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক পিইডিপি-৪ (অতিরিক্ত সচিব) মো. আব্দুল মান্নান আমার সংবাদকে বলেন, শিক্ষকদের ইংরেজিতে দক্ষ করার জন্য পিইডিপি-৪ প্রকল্পের একটি অংশ হিসেবে আমরা কাজ শুরু করেছি।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের ১৫টি পিটিআইতে প্রায় ৪ হাজার জনের একটা তালিকা করা হয়েছে। বিট্রিশ কাউন্সিল থেকে প্রত্যেক পিটিআই-এ ২ জন করে বিদেশি ট্রেইনারের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিয়ে প্রায় দুই হাজারের মতো মাস্টার ট্রেইনার তৈরি করা হবে।

আব্দুল মান্নান বলেন, আশা করছি চলতি বছরের ডিসেম্বর থেকে এই প্রশিক্ষণ শুরু হবে।

এছাড়াও তিনি বলেন, মাস্টার ট্রেইনার তৈরির পর ২০২১ সালের মধ্যে সারা দেশে যেসব প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক ইংরেজিতে ভালো পারদর্শী তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

এসটিএমএ


আরও পড়ুন