গাইবান্ধায় বাস ও লেগুনার সংঘর্ষে নিহত ১

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   |   ০২:১২, নভেম্বর ০৮, ২০১৯

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীর মহেশপুর এলাকায় হানিফ পরিবহন ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও ২৪ জন আহত হয়েছে।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) ভোর ৬ টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত লেগুনা চালক আরিফ (১৭) পলাশবাড়ীর আর্দশ ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র। তিনি সাদুল্লাপুরের ধাপেরহাট ইউনিয়নের তিলকপাড়া গ্রামের ড্রাইভার সনজু মিয়ার ছেলে।

এলাকাবাসী ও হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সাদুল্লাপুরের ধাপেরহাট থেকে ছেড়ে আসা লেগুনা ও ঢাকা থেকে রংপুরগামী হানিফ পরিবহন (ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৬৮৭৯) মহেশপুর গ্রাম নামক স্থানে পৌঁছালে মুখামুখি সংঘর্ষ হয়। এতে হানিফ পরিবহনের ধাক্কায় লেগুনাটি দুমরে মুছরে রাস্তা থেকে ছিটকে পড়ে। হানিফ পরিবহনের বাসটি রাস্তার পুর্ব পাশে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়।

এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় লেগুনা চালক আরিফ ও আহত হয় লেগুনা ও হানিফ পরিবহনে ২৪ জন যাত্রী। আহতদের উদ্ধার করে স্হানীয় পলাশবাড়ী ও পীরগঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের একটি টিম।

দুর্ঘটনা সম্পর্কে গোবিন্দগঞ্জের হাইওয়ে পুলিশের এসআই শাহআলম বলেন, হানিফ পরিবহনের চালকের কারণেই দুর্ঘটনা ঘটছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ হিসাবে তিনি বলেন, হানিফ পরিবহন তার লেন পরিবর্তন করেছে।

লেগুনা চালক আরিফের লাশ সাদুল্লাপুরের ধাপেরহাট ইউনিয়নের তিলক পাড়া গ্রামে পৌঁছালে বাড়িতে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। নিহত আরিফ বাবা মায়ের একমাত্র পুত্র সন্তান।
অভাবের তাড়নায় ও সেনাবাহিনীতে ড্রাইভারের চাকুরি পাওয়ার আশায় লেখাপড়ার পাশাপাশি লেগুনা চালিয়ে টাকা রোজগার করতো। তিনি সকালে বাড়ি থেকে লেগুনা নিয়ে বের হওয়ার ৩০ মিনিটের মধ্যেই এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান পরিবারের সদস্য।

এসএসআর


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর