ঘূর্ণিঝড় বুলবুল: সারাদেশে সব প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন

আমার সংবাদ ডেস্ক   |   ০৫:০৩, নভেম্বর ০৮, ২০১৯

ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বুলবুলকে কেন্দ্র করে দেশের উপকূলীয় জেলাগুলোতে দেখা দিয়েছে অনেক প্রভাব। তাই সারাদেশে ক্ষয়ক্ষতি কমাতে সব প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন।

একুওয়েদার আপডেটে বলা হচ্ছে শনিবার (৯ নভেম্বর) থেকে রোববার (১০ নভেম্বর) প্রচুর বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলের’ প্রভাবে আকাশ মেধাচ্ছন্ন। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হওয়া শুরু হয়েছে ঢাকাসহ উপকূলীয় অঞ্চলে। মাছ ধরার ট্রলারগুলোকে তীরে ফেরার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। বন্ধ রয়েছে অভ্যন্তরীণ নৌযান চলাচল।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপকূলীয় জেলাগুলোর চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে জাহাজ থেকে সব ধরনের পণ্য ওঠানামা বন্ধ রাখা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের বিষয়ে ইতিমধ্যে বাংলাদেশ ও ভারতের অধিকাংশ সংবাদমাধ্যম গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করেছে।

ঢাকা: ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে শুক্রবার (৮ নভেম্বর) দুপুর থেকে ঢাকায় শুরু হয়েছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। ঢাকা সহ সারা দেশের আকাশ মেঘে ঢেকে রয়েছে। ইতিমধ্যে উপকূল এলাকায় প্রচারণা চালানো হয়েছে।

পটুয়াখালী: কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে লাল পতাকা টাঙিয়ে ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। উত্তাল হয়ে উঠছে সাগর। পর্যটকদের সৈকতে না নামার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অভ্যন্তরীণ ১৮টি রুটে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বিআইডব্লিউটিএ।

বরগুনা: বরগুনায় শুক্রবার সকাল থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের নির্দেশনার পর, সাগর থেকে ট্রলার নিয়ে উপকূলে ফিরছেন জেলেরা। বন্ধ রয়েছে সব ধরনের লঞ্চ চলাচল।

বরিশাল: বরিশালে জরুরি সভা করে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় আশ্রয়কেন্দ্র, কন্ট্রোল রুম ও ত্রাণসহ সব ধরনের প্রস্তুতির কথা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। বরিশাল জোনে ৬ হাজারের বেশি সিপিপির স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রয়েছে।

বাগেরহাট: বাগেরহাটে মেঘে ছেয়ে আছে পুরো আকাশ। সকাল থেকেই দেখা মেলেনি সূর্যের। উপকুলজুড়ে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। ২৩৬ টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখার কথা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

চট্টগ্রাম: এদিকে বুলবুলের প্রভাবে সাগর উত্তাল থাকায় চট্টগ্রামের বহির্নোঙরে থাকা ৫৫টি জাহাজ থেকে সব ধরনের পণ্য ওঠানামা বন্ধ ঘোষণা করেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। তবে বন্দরে অবস্থান করা জাহাজ থেকে সতর্কতার সঙ্গে চলছে পণ্য খালাস কার্যক্রম।

এছাড়া, খুলনা, মোংলা, সাতক্ষীরা, পিরোজপুরসহ উপকূলীয় এলাকাগুলোতে বাতাসের গতি কিছুটা বাড়ার পাশাপাশি গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। উপকূলবাসীকে আশ্রয়কেন্দ্র বা নিরাপদ স্থানে থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এমআর


আরও পড়ুন