অভিবাসী মুসলিমের কাছে হারতে যাচ্ছেন বরিস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   |   ০৭:০০, নভেম্বর ০৮, ২০১৯

অবশেষে কট্টর ব্রেক্সিটপন্থি যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নির্বাচন দিতে রাজি হয়েছেন। ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে নির্বাচনী প্রচারণা। বরিস মুখোমুখি হচ্ছেন বিরোধী লেবার পার্টির এক মুসলিম অভিবাসী প্রার্থীর।

লন্ডনের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত যুক্তরাজ্যের অক্সব্রিজ এবং সাউথ রুস্লিপ সংসদীয় আসন থেকে লড়ছেন বরিস জনসন। বিরোধী দল লেবার পার্টি সে আসনে আলি মিলানি নামে ২৫ বছর বয়সী এক মুসলিম অভিবাসীকে মনোনয়ন দিয়েছে।

দশ বছর আগে এই আসনটি কনজারভেটিভ পার্টির জন্য নিরাপদ আসন ছিলো। তখন প্রায় ১০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয় ছিনিয়ে নিয়েছিলো বরিসের দল। তবে গত নির্বাচনে সামান্যতম ব্যবধানে জয় পেয়েছিল।

প্রচারণায় লোবার পার্টির সমর্থন বেশি লক্ষ্য করা গেছে বলে ওয়াশিংটন পোষ্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। বলা হয়েছে, এই আসনে এবার জনসনের জয় কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

অপরদিকে লেবার পার্টির উপর মহল থেকেও বরিস বিরোধী প্রচারণা চালানো হচ্ছে। তাদের দাবি বরিসের প্রতি মানুষের আগের মতো আস্থা নেই। তাই এই নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানের জয়ে আত্মবিশ্বাসী দলটি।

লন্ডনের আইন অনুযায়ী কোন এলাকা থেকে নির্বাচন করতে গেলে তাকে সেই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা হওয়ার কোন বাধ্যকতা নেই। তবে আলি সেই এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে জনগনের আবেগ ছুঁয়ার চেষ্টা করেছেন এবং সাড়াও পেয়েছেন।

তাছাড়া বরিসের প্রতি ঐ আসনের নাগরিকদের কিছু ক্ষোভও রয়েছে। উল্লেখ্য লেবার পার্টি থেকে মনোনীত আলি মিলানির জন্ম ইরানের রাজধানী তেহরানে। পাঁচ বছর বয়সে মা ও বোনের সাথে লন্ডনে আসনে।

এসএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর