ফেনীতে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মোকাবেলায় বিশেষ সতর্কতা

মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, ফেনী   |   ০২:৫০, নভেম্বর ০৯, ২০১৯

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় ফেনীর উপকূলীয় এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিশেষ সর্তকতা জারি করা হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে অর্ধশত আশ্রয়কেন্দ্র। ছুটি বাতিল করা হয়েছে সোনাগাজী উপজেলার সব সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের।

এছাড়া দুযোর্গকালীন সময়ে উপজেলার সব কয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকেও আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
ফেনীর আকাশে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে শনিবার (৯ নভেম্বর) সকাল থেকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন।

শুক্রবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সিপিপির স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অজিত দেব জানান, ঘূর্ণিঝড় ও দুর্যোগ মোকাবিলায় এবং জানমালের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনাসহ জনগনকে সর্তক করার লক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় সোনাগাজীতে অর্ধশত ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্রসহ উপজেলার সব কয়টি বিদ্যালয়কে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

উপজেলায় একটি নিয়ন্ত্রণকক্ষ খোলা হয়েছে এবং ১০টি চিকিৎসক দল, ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে। দুর্যোগকালীন উদ্ধার তৎপরতাসহ বিভিন্ন কাজের জন্য সিপিপির দেড়হাজার স্বেচ্ছাসেবকসহ ২হাজার কর্মী প্রস্তুত রয়েছে। মওজুদ রাখা হয়েছে শুকনো খাবার।

ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতির কর্মসূচির (সিপিপি) উপজেলা দল নেতা শান্তি রঞ্জন কর্মকার জানান, ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হওয়ার পর থেকে উপজেলার সর্বত্র সিপিপির সদস্যরা প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। প্রতিটি এলাকায় জনগনকে ঘূর্ণিঝড় সম্পর্কে সতর্ক করে জানমাল ও গবাদিপশুর নিরাপদে সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে।

এমআর


আরও পড়ুন