বঙ্গবন্ধু বিপিএলের লোগো উন্মোচন প্লেয়ার্স ড্রাফট হবে আজ

প্রিন্ট সংস্করণ॥ক্রীড়া প্রতিবেদক   |   ০১:৪৭, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
গতকাল সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার লিগের লোগো উন্মোচন করেন বাংলাদেশ ক্রিকেটে বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন-আমার সংবাদ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) হবে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ নামে। আগামী ১১ ডিসেম্বর শুরু হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টের লোগো উন্মোচন করা হলো গতকাল। বিপিএল শুরুর তিন দিন আগে ৮ ডিসেম্বর এর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এবার সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হচ্ছে। এবার কোনো ফ্রাঞ্চাইজি নেই। বিপিএলের আয়োজন ও দল ব্যবস্থাপনা সবই করবে বিসিবি।

গতকাল বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসার পাপনসহ বোর্ডের অন্য পরিচালকদের উপস্থিতিতে উন্মোচন করা হয় লোগো।

আজ হোটেল র্যাডিসনে সন্ধ্যা ৬টায় এবারের বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফট হবে। বিসিবি প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘আগামী ৮ ডিসেম্বর থেকে বঙ্গবন্ধু বর্ষ শুরু হবে। ওইদিন প্রধানমন্ত্রী বিপিএলের উদ্বোধন করবেন। বিপিএলের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু বর্ষ শুরু হচ্ছে, এটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

বোর্ড প্রধান আরও বলেছেন, ‘এবারের বিপিএল বিশেষ বিপিএল।

অন্যবার দেশি খেলোয়াড়রা খুব একটা সুযোগ পায় না। এবারের বিপিএলে দেশিদের প্রাধান্য দেয়া হবে। এতে করে দেশের ক্রিকেট উপকৃত হবে।’ অনুষ্ঠানে দলগুলোর নাম ঘোষণা করা হয়। সাতটি দল হচ্ছে?যমুনা ব্যাংক ঢাকা প্লাটুন, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স, প্রিমিয়ার ব্যাংক খুলনা টাইগার্স, সিলেট থান্ডার্স, রংপুর রেঞ্জার্স, রাজশাহী রয়্যালস, কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স।

বিপিএলে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা কে কোন ক্যাটাগরিতে : বাংলাদেশি খেলোয়াড়দের এবার ৬টি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। দেশের ১৮১ জন খেলোয়াড় থাকছেন এবারের বিপিএলে। তাদের ক্যাটাগরি অনুসারে ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে। সবার উপরে স্বাভাবিকভাবেই ‘এ+’ প্লাস ক্যাটাগরি।

এই ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশের খেলোয়াড় থাকছেন চারজন। সাকিব আল হাসান ছাড়া (নিষেধাজ্ঞায় আছেন) পঞ্চপাণ্ডবের চার খেলোয়াড়-মাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আছেন এই ক্যাটাগরিতে। তাদের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ৫০ লাখ টাকা।

‘এ’ ক্যাটাগরিতে থাকা দেশি খেলোয়াড়দের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ২৫ লাখ টাকা। এখানে আছেন ৯ ক্রিকেটার-মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, সৌম্য সরকার, লিটন দাস, তাইজুল ইসলাম, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক এবং মোহাম্মদ মিঠুন।

‘বি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ২৪ জন ক্রিকেটার। তাদের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ১৮ লাখ টাকা। তারকা ক্রিকেটারদের মধ্যে শফিউল ইসলাম, আবু জায়েদ রাহী, এনামুল হক বিজয়, রুবেল হোসেন, সাব্বির রহমান, তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন, আল আমিন, আবু হায়দার রনিরা আছেন এই ক্যাটাগরিতে। ‘সি’ ক্যাটাগরির ৪১ জন ক্রিকেটারের ভিত্তিমূল্য ১২ লাখ টাকা।

এই ক্যাটাগরিতে আছেন মোহাম্মদ আশরাফুল, শাহরিয়ার নাফীস, অলক কাপালি, আরাফাত সানী, নাইম শেখ, নাসির হোসেন, আবদুর রাজ্জাক, সাদমান ইসলামরা। ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ৫৯ জন। শাহাদাত রাজীব, এনামুল হক জুনিয়র, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, ধীমান ঘোষ, নাজমুল হোসেন মিলনদের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ৮ লাখ টাকা।

‘ই’ ক্যাটাগরিতে আছেন তুষার ইমরান, জয়রাজ, সাজেদুল ইসলামসহ ৪৪ জন ক্রিকেটার। এই ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ৫ লাখ টাকা।

২১ দেশের ৪৩৯ বিদেশি খেলোয়াড় থাকছেন ড্রাফটে : প্লেয়ার্স ড্রাফটের বাকি ২৪ ঘণ্টারও কম সময়। কিন্তু পাওয়া যাচ্ছিলো না ড্রাফটে নাম উঠতে যাওয়া খেলোয়াড়দের তালিকা। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল থেকে শুরু করে বিসিবির কর্মকর্তাদের কাছে পর্যন্ত খোঁজ নিয়েও মিলছিলো না কোনো সদুত্তর। যার ফলে বেড়েই যাচ্ছিলো অপেক্ষা।

দেশি খেলোয়াড়দের ৬টি গ্রেড করা হলেও, বিদেশিদের জন্য করা হয়েছে পাঁচটি গ্রেড। তবে সর্বোচ্চ ‘এ+’ গ্রেডে রাখা হয়েছে মাত্র চারজন দেশি খেলোয়াড়, অন্যদিকে বিদেশি খেলোয়াড়দের মধ্যে ‘এ+’ গ্রেডে রয়েছেন ১১ জন খেলোয়াড়। দেশিদের মধ্যে এ+ গ্রেডে থাকছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বিদেশি ১১ জন হলেন ড্যান ভিয়াস (দক্ষিণ আফ্রিকা), শহীদ আফ্রিদি (পাকিস্তান), রিলে রুশো (দক্ষিণ আফ্রিকা), মোহাম্মদ নবী (আফগানিস্তান), শোয়েব মালিক (পাকিস্তান), হাসান আলি (পাকিস্তান), ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), ড্যারেন ব্রাভো (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), ডোয়াইন স্মিথ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) ও মুজিব উর রহমান (আফগানিস্তান)।

এ ছাড়া দেশি-বিদেশিদের বৈষম্য রয়েছে পারিশ্রমিকের ক্ষেত্রেও। দেশি খেলোয়াড়দের এ+ গ্রেডে থাকা চারজন পাবেন ৫০ লাখ টাকা করে। অন্যদিকে বিদেশিদের এ+ গ্রেডের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ১ লাখ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৮৪ লাখ টাকার সমান।

এমনকি, যে ১৫ জন বিদেশি খেলোয়াড় রয়েছেন এ গ্রেডে, তারাও পাবেন দেশি খেলোয়াড়দের এ+ গ্রেডের চেয়ে বেশি পারিশ্রমিক। তাদের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ৭০ হাজার ডলার বা প্রায় ৫৯ লাখ টাকা। শুধু তাই নয়- বিদেশি খেলোয়াড়দের মধ্যে সর্বনিম্ন ‘ডি’ গ্রেডে রাখা হয়েছে ২৭২ জন ক্রিকেটারকে।

তাদের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ২০ হাজার ডলার বা ১৬ লাখ টাকা। যা কি না দেশি খেলোয়াড়দের ‘বি’ গ্রেডের প্রায় সমান। বিদেশি খেলোয়াড়দের মধ্যে নিবন্ধিত খেলোয়াড়দের ভাগ করা হয়েছে এ+, এ বি সি ও ডি গ্রেডে। সবচেয়ে বেশি ডি গ্রেডে রাখা হয়েছে ২৭২ জনকে। এ ছাড়া এ+ গ্রেডে ১১, এ গ্রেডে ১৫, বি গ্রেডে ৬৬ ও সি গ্রেডে ৭৫ জন খেলোয়াড় রাখা হয়েছে।

এসটিএমএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর