আমার সংবাদকে নির্মল রঞ্জন গুহ

শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হবে স্বেচ্ছাসেবক লীগ

প্রিন্ট সংস্করণ॥নিজস্ব প্রতিবেদক   |   ০১:০১, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ বলেছেন, আস্থা ও ভালোবাসা রেখে নেত্রীর দেয়া নতুন দায়িত্ব নিষ্ঠা ও সততার সাথে পালন করবো। স্বেচ্ছাসেবক লীগকে নেত্রীর নিরাপদ ভ্যানগার্ড হিসেবে গড়ে তুলবো। রোববার (১৭নভেম্বর) সন্ধ্যায় আমার সংবাদকে এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি একথা বলেন।

নির্মল রঞ্জন গুহ বলেন, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে নেত্রী আমার উপর যে আস্থা রেখেছেন, তার মূল্য আমি দিতে চাই। স্বেচ্ছাসেবক লীগকে সত্যিকারের সেবক হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গঠনে সেবকের ভূমিকায় থাকবে আমাদের প্রতিটি কর্মী।

পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন প্রসঙ্গে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি বলেন, আমরা ইতোমধ্যে চিন্তা-ভাবনা শুরু করেছি। আমাদের সাংগঠনিক নেত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমানে দেশের বাইরে আছেন। তিনি এলে আমরা শুভেচ্ছা বিনিময় করবো এবং পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের বিষয়ে নির্দেশনা চাইবো। তিনি যেভাবে নির্দেশনা দিবেন সেভাবেই কমিটি গঠন করা হবে।

নতুন নেতৃত্ব নিয়ে নির্মল রঞ্জন গুহ আরও বলেন, সন্ত্রাস, জঙ্গি, মাদক, দুর্নীতিবাজ ও অন্যায়কারীদের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। সেই ঘোষণা বাস্তবায়ন করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে সারা দেশেই শুদ্ধি অভিযান করছেন তিনি। নেত্রীর ওই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে স্বেচ্ছাসেবকলীগেও কোনো দুর্নীতিবাজ নেতা স্থান পাবে না। যারা সংগঠনের জন্য নিবেদিত, পরিচ্ছন্ন, মেধাবী তারাই কমিটিতে স্থান পাবেন।

নির্মল রঞ্জন গুহ সদ্য অনুষ্ঠিত জাতীয় সম্মেলন-২০১৯-এর প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন। দীর্ঘ দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে তিনি স্বেচ্ছাসেবকলীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত। বিদায়ী কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

এর আগে ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। এক-এগারো সরকারের সময়ে রাজপথে আন্দোলন করতে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হন তিনি।

নির্মল রঞ্জন গুহ বলেন, আমি আওয়ামী পরিবারের সন্তান। ফলে অনেকদিন বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের হাতে নির্যাতনে শিকার হয়েছি। কিন্তু আওয়ামী লীগের রাজনীতি ছেড়ে চলে যাইনি। শেষদিন পর্যন্ত শেখ হাসিনার কর্মী হিসেবে থাকবো।

এসটিএমএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর