ছাত্রলীগে নতুন নেতৃত্ব আসছে

প্রিন্ট সংস্করণ॥আসাদুজ্জমান আজম   |   ০১:২৫, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

ঢাকা দক্ষিণ মহানগর ছাত্রলীগের থানা, ওয়ার্ড এবং কলেজ পর্যায়ে নেতৃত্ব ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চলমান শুদ্ধি অভিযান সফল করার অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ মহানগর ছাত্রলীগ।

মেয়াদোত্তীর্ন এবং বিতকির্তদের মহানগর ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে বাদ দিতে চায় সংগঠনের শীর্ষ নেতারা। একইসাথে ক্লিন ইমেজ ও আওয়ামী লীগ পরিবারের এবং পরীক্ষিতদের নেতৃত্ব আনা হবে। ইতোমধ্যে ২১টি থানার ৮টি ও ৫টি কলেজের ১টি ও ১টি মাদ্রাসা কমিটির বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে সংগঠনটি।

মেয়াদোত্তীর্ণ থানাগুলো হলো- শাজাহানপুর, কোতোয়ালী, বংশাল, শ্যামপুর, পল্টন, চকবাজার, রমনা ও মতিঝিল। কলেজগুলোর মধ্যে রয়েছে সিদ্বেশ্বরী ডিগ্রি কলেজ ও সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা কমিটি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান বলেন, দক্ষিণ ছাত্রলীগের যেসব শাখার মেয়াদোত্তীর্ণ ওইসব কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছি। কারণ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী দলসহ সবক্ষেত্রে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন।

এরই অংশ হিসেবে নগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের যেসব শাখার মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে, সেগুলো বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করার চেষ্টা করছি। আমরা মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত করে যাদের বিরুদ্ধে কোনো অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ নেই এবং আওয়ামী লীগের পরিবারের সদস্য তাদের মধ্য থেকে নতুন নেতৃত্ব আনতে চাই। একই সাথে যাদের ছাত্রত্ব আছে, তাদের সামনে নিয়ে আসতে চাই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যা চান, তার বাইরে যাওয়ার আমাদের কোনো সুযোগ নেই। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ বলেন, ছাত্রলীগের সাংগঠনিক অভিভাবক আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি চান মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন নেতৃত্ব ওঠে আসুক। সেইদিক বিবেচনা করেই আমরা মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দিয়েছি। খুব শিগগিরই কমিটি দিয়ে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচিত করা হবে।

এদিকে, মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণার পর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান ও সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমেদকে নিয়ে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনৈতিক সুবিধা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ প্রসঙ্গে মেহেদী হাসান বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহল আমাদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র চালাচ্ছেন। কিন্তু আমরা নেত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে পিছ পা হব না। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দফতর সম্পাদক আহসান হাবিব বলেন, সুনিদির্ষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে মেয়াদোত্তীর্ন ঢাকা দক্ষিণ মহানগরের কয়েকটি কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। খুব শিগগিরই ইউনিটগুলোতে পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব আনা হবে।

এসটিএমএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর