প্রথম দিন অনুপস্থিত প্রায় দেড়লাখ শিক্ষার্থী

প্রিন্ট সংস্করণ॥নিজস্ব প্রতিবেদক   |   ০১:৩৮, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
গতকাল থেকে শুরু হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা প্রশ্নের উত্তর লিখতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। পরীক্ষা চলবে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত। ছবিটি পুরান ঢাকার আহমেদ বাওয়ানী একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজ থেকে তোলা। এম খোকন সিকদার

এবছর প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী সারাদেশে শুরু হয়েছে। তবে প্রথম দিনের পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিলো ১ লাখ ৪৩ হাজার ৯৫৭ জন শিক্ষার্থী। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন বলেছেন, সারাদেশে পরীক্ষা সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও স্বতঃস্ফূর্তভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কোথাও কোন প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। তবে গুজবের বিরুদ্ধে কঠোর নজরদারি রাখা হচ্ছে।

গতকাল রোববার প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরুর দিন রাজধানীর বেইলি রোডে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মোঃ আকরাম-আল-হোসেন ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এএফএম মনজুর কাদির উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ সহ মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা সারাদেশে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করছেন। তাদের মাধ্যমে প্রতিটি মুহূর্তে পরীক্ষার খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘পঞ্চম শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্তের ফাইল মন্ত্রণালয়ে চালাচালি হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী চাইলে এ পরীক্ষা তুলে দিয়ে প্রাথমিক শিক্ষাকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত করা হবে। সে লক্ষ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে অষ্টম শ্রেণিতে উন্নতকরণের কাজ শুরু হয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে গুজবের বিরুদ্ধে সতর্ক ও আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। তিনি বলেন, এ পরীক্ষা সুন্দরভাবে সম্পাদন করতে মন্ত্রণালয়ের মনিটরিং সেলের সঙ্গে জেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘প্রশ্নফাঁসের গুজব’ ছড়ানোর যেসব লিংক পাওয়া গেছে সেগুলো বন্ধ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে প্রথমদিনের পরীক্ষা শেষে গতকাল রাতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কন্ট্রোলরুম থেকে এক বিজ্ঞপ্তি থেকে জানানো হয়েছে, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে প্রথম পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিলো ৯৭ হাজার ৬০২ জন এর মধ্যে ছাত্র ৫২ হাজার ৩৩৪ জন এবং ছাত্রী অনুপস্থিত ৪৫ হাজার ২৬৮ জন। তবে দেশের কোনো বিভাগে কোনো পরীক্ষার্থী বহিস্কার হয়নি। এদিকে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনীতে ৪৬ হাজার ৩৫৫ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল এর মধ্যে ছাত্র ২৮ হাজার ২৭ জন এবং ১৮ হাজার ৩২৮ জন ছাত্রী অনুপস্থিত ছিল। এদিকে এই পরীক্ষায় রংপুর বিভাগে ১০ জন পরীক্ষার্থী এবং ঢাকা বিভাগে ১ জন পরীক্ষার্থীকে অসুদোপায় অবলম্বনের কারণে রহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়া উভয় পরীক্ষার কোনোটাতেই কোনো কেন্দ্র পরিদর্শক বহিস্কার হন নি।

উল্লেখ্য, এবার সমাপনী পরীক্ষায় ২৯ লাখ ৩ হাজার ৬৩৮ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছেন। সারাদেশে মোট ৭ হাজার ৪৭০টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে দেশের বাইরে ৮ টি দেশে ১২টি কেন্দ্রে চলছে পরীক্ষা। এ বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ২৫ লাখ ৫৩ হাজার, ২৬৭ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ছাত্র সংখ্যা ১১ লাখ ৮১ হাজার ৩০০ জন, ছাত্রী সংখ্যা ১৩ লাখ ৭১ হাজার ৯৬৭ জন। ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ৩ লাখ ৫০ হাজার ৩৭১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে, যার মধ্যে ছাত্র সংখ্যা ১ লাখ ৮৭ হাজার ৮২ এবং ছাত্রী সংখ্যা ১লাখ ৬৩ হাজার ২৮৯ জন। পরীক্ষাটি আগামী ২৪ নভেম্বর শেষ হবে।

এসটিএমএ


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর