আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে ক্রিকেটারের মৃত্যু

স্পোর্টস ডেস্ক   |   ১০:২৫, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

মাঠে ক্রিকেটারের মৃত্যুর ঘটনা নতুন নয়। হৃদরোগের কারণে আরও নানা কারণে আগেই ঘটেছে এই ধরণের মৃত্যু। তবে এবার ঘটেছে পুরো নতুন এক ঘটনা। যেখানে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে কোনো ক্রিকেটার অখুশি হয়ে হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন।

ভারতের হায়দরাবাদে এই দুঃখজনক ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার ৪১ বছর বয়সী ক্রিকেটার বীরেন্দ্র নায়েক ওয়ান-ডে লিগ ম্যাচ চলাকালীন ড্রেসিরুমে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হয়। ম্যাচে হায়দরাবাদের মারডপল্লী স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে খেলতে নেমেছিলেন বীরেন্দ্র নায়েক। এই ম্যাচে তিনি হাফসেঞ্চুরিও করেন।

অসুস্থ বোধ করার সঙ্গে সঙ্গে সতীর্থরা বীরেন্দ্র নায়েককে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু অবশেষে তাকে বাঁচানো যায়নি। ম্যাচ চলাকালীন শরীরে কোনো ধরনের অস্বস্তি অনুভব করেননি। কিন্তু আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরার পরই অসুস্থ বোধ করেন বীরেন্দ্র। এরপর ড্রেসিংরুমেই পড়ে যান।

বীরেন্দ্র’র বাড়ির লোকজন জানায়, তার হৃদযন্ত্রে সমস্যা ছিল। আর সেজন্য তাকে নিয়মিত ওষুধ খেতে হতো। এদিন ম্যাচে বীরেন্দ্র ৬৬ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন। কিন্তু এরপরই আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে আউট হয়ে যান।

এরপর আম্পায়ারের এই সিদ্ধান্তে হতাশ হয়ে পড়েছিলেন বীরেন্দ্র। ড্রেসিরুমে ফেরার পর হতাশায় দেয়ালে মাথা ঠোকেন বলেও জানান তার সতীর্থরা।

একজন সতীর্থ তৎক্ষণাৎ নিজের গাড়িতে বীরেন্দ্রকে চাপিয়ে হাসপাতালের উদ্দেশ্য রওনা হন। কিন্তু হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়।

এদিকে সতীর্থের এমন আকস্মিক মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন মারডপল্লী স্পোর্টিং ক্লাবের ক্রিকেটাররা।

সূত্র- জি নিউজ

জেডআই


আরও পড়ুন