‘সম্পূর্ণ ডিজিটাল হজ প্রক্রিয়ায় ভারত হবে বিশ্বে প্রথম’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   |   ০৮:২৩, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯

ভারতের কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি বলেছেন, ডিজিটাল ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে আগামী বছরের হজের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। এ ক্ষেত্রে ভারতই হবে বিশ্বের প্রথম দেশ।

রোববার ২০২০ সালের হজের জন্য সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রী মুহাম্মাদ সালেহ বিন তাহেরের সাথে দ্বিপক্ষীয় হজ ২০২০ চুক্তি সই করেছেন।

নাকভি বলেন, ‘হজ্বের জন্য অনলাইনে অ্যাপ্লিকেশন, ই-ভিসা, হজ পোর্টাল, হজ মোবাইল অ্যাপ, ই-মসিহা স্বাস্থ্য সুবিধা, মক্কা-মদিনায় অবস্থানের ভবন এবং যাতায়াত সম্পর্কিত তথ্য, ‘ই-লাগেজ ট্যাগিং’ ব্যবস্থার সঙ্গে ভারত থেকে মক্কা ও মদীনায় যাওয়া হজযাত্রীদের যুক্ত করা হয়েছে।’

‘একদিকে ভারতে সমস্ত যাত্রীদের স্বাস্থ্য কার্ড সরবরাহের ব্যবস্থা করা হয়েছে, অন্যদিকে সৌদি আরবে তাদের ‘ই-মসিহা স্বাস্থ্য সুবিধা’ দেওয়া হবে। এতে প্রত্যেক হজযাত্রীর স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য অনলাইনে পাওয়া যাবে। জরুরি পরিস্থিতিতে তাদের দ্রুত চিকিৎসা সহায়তা দেওয়া হবে।’

চলতি বছরের ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ভারতীয় হজ কমিটি মোট ১ লাখ ৭৬ হাজার ৭১৪টি আবেদন পেয়েছে। এ বছর হজের আবেদনের শেষ তারিখ ৫ ডিসেম্বর।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি আরও বলেন, জেদ্দায় ভারতীয় কনস্যুলেট, সৌদি আরব সরকার এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো ‘হজ-২০২০’ কে সফল ও মসৃণ করার লক্ষ্যে সহযোগিতা করছে।

২০২০ সালে ২ লাখ ভারতীয় মুসলিম কোনও হজ ভর্তুকি ছাড়াই হজযাত্রা করবেন বলেও তিনি জানান।

আরআর


আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

সব খবর