শিরোনাম

মুসা আল হাফিজের কবিতা- জন্মঋণ

মুসা আল হাফিজ   |  ০৭:২১, অক্টোবর ১২, ২০১৯

সবাই বলছে, বিদেশে চলে যান, সময় ভালো না
আমি এই ঘুঘুডাকা দুপুর ছেড়ে কোথায় হারাবো?

যেখানে ফুলেরা থাকে, সেখানে কাঁটা ও কাঁটাতার

এই অবরুদ্ধ ফুলের কম্পন তো আমারই
হৃদপিণ্ডের ওঠানামা!

হিজলের পাতায় লিখেছি নিজের নাম
দোয়েলের পালকে আমি উড়ি প্রত্যহ
কাকের কোরাসেও আমি বাজি নানা রাগে
কোকিলের ডিমে থাকে আমার পাহারা!

এই পদ্মা মেঘনার পলি ছাড়া কোথায় ডেরা গাড়বো?
এই আজানে জাগ্রত ভোর পাখির সুধা হয়ে আমার সূর্যোদয়ে মিশে আছে!

রাত যত গাঢ় হয়, নদীতীরে, ঘণবনে
সবুজে শিহরিত মাঠে
আমার ডাকনাম ধরে জ্যোৎস্নার কণ্ঠস্বরে
শোনা যায় সুর!

রহস্যের হাওয়া থেকে ঝরে পড়ে নক্ষত্রের স্বেদ
গাছে ঘাসে নেমে আসে ঋষীর হৃদয়!
ঘরে ঘরে ছলকে ওঠে শিশুর সম্ভাবনা-
আমাকে সে কবিতা বানায়!

আমি এই নদীর দুধে লালিত্য পেয়েছি,
আমি এই চাষার ঘামে ভাসিয়েছি নাও
আমি এই মুর্শিদা গীতে মজেছি মরমে
আমি এই চর্যার সুরে হয়েছি দোতারা!

চারদিকে শস্যের আয়াতে আয়াতে
আমাকে নব নব জীবন লিখতে দাও

আমাকে হতে দাও রেসকোর্স ময়দান!

তোমরা আমাকে এই দ্রাবিড় সৌহার্দ্য থেকে পালাতে বলো না
আমি এই বিশ্বাসের ভূমে অস্তিত্বের জয়নাদ হয়ে
মরবো আর জন্মাবো
মরবো আর জন্মাবো
মরবো আর জন্মাবো

আরআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত