শিরোনাম

টালিউডের ছবির দখলে ঢালিউডের হল

প্রিন্ট সংস্করণ॥ বিনোদন প্রতিবেদক   |  ০৭:২৮, জুলাই ১১, ২০১৯

দেশীয় ছবির নির্মাণ কমে যাওয়ায় কলকাতা থেকে ছবি আমদানির প্রতি ঝুকেছেন একাধিক আমদানিকারক। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ছবি আমদানি করছেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান।

গত মাসের শেষের দিকে তিনি আমদানি করেছিলেন ‘ভোকাট্টা’ শিরোনামের একটি ছবিটি। তারপর সেলিম খান ঘোষণা দিয়েছিলেন দেব ও জিতের ছবি আমদানি করার। তারই অংশ হিসেবে আজ সারাদেশের ৭২টি হলে মুক্তি পাচ্ছে ‘কিডন্যাপ’ ছবিটি।

এ ছবিতে জুটিবদ্ধ হয়েছেন দেব ও রুক্মিণী। গত ঈদুল ফিতরে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন হলে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। মুক্তি পর কলকাতার বেশ ভালো ব্যবসা করেছে। ছবিটি বাংলাদেশেও ভালো ব্যবসা করবে এমনটাই আশা করেন আমদানিকারক সেলিম খান।

আমার সংবাদকে তিনি বলেন, “হল মালিকেরা বলেন, ছবি নাই। এইতো ছবি, নেন চালান। বিনিময় প্রথায় ছবিটি এনেছি। আমার ‘প্রেমচোর’ ছবির বিনিময়ে এসেছে ‘কিডন্যাপ’ ছবিটি।”

সেলিম খান জানান, আসছে পূজায় দুই বাংলায় একসঙ্গে মুক্তি পাবে ‘প্রেমচোর’ ছবিটি। উত্তম আকাশ পরিচালিত এ ছবিতে জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছেন শান্ত খান ও নেহা আমানদ্বীপ।

জানা গেছে, এ সপ্তাহে ‘কিডন্যাপ’ চলবে দেশের ৭২টি প্রেক্ষাগৃহে। আগামী সপ্তাহে জিৎ-কোয়েল জুটির ‘শেষ থেকে শুরু’ ছবিটি আমদানি করছেন সেলিম খান।

‘শাহেনশাহ’ ছবিটির বিনিময়ে আসছে এ ছবিটি। ‘শেষ থেকে শুরু’ ছবির অনুমতি এরই মধ্যে পেয়েছেন বলে গতকাল জানিয়েছেন সেলিম খান।

তার ভাষায়, ‘এরই মধ্যে ছবিটি মুক্তির অনুমতি পেয়েছি। দেব-জিতের পর সোহম-শ্রাবন্তী জুটির আরও একটি ছবি আমদানি করার চিন্তা ভাবনা চলছে। দেখা যাক কি হয়।’

এদিকে, দেব-জিতের ছবি আমদানির ব্যাপারে ভিন্ন মত রয়েছে ফিল্ম পাড়ায়। কেউ কেউ বিষয়টি ভালো চোখে দেখলেও ভিন্ন চোখে দেখছেন অনেকেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট একজন বলেন, ‘কলকাতা থেকে ছবি আমদানি করে লাভ তো হচ্ছে না। দর্শক ছবি দেখছে না। তাহলে এ আমদানি করে কি লাভ? দেশীয় হল বাঁচাতে হলে দরকার ভালো মানের ছবি।

যেসব ছবি আমদানি করা হয় সেগুলো পুরাতন ছবিটি। বিভিন্ন মাধ্যমে এ ছবিগুলো আমাদের দেশের দর্শক দেখে ফেলে। প্রযুক্তি এখন হাতের মুঠোয়। তাই আমদানি করলে নতুন ছবিগুলোই আমদানি করা উচিত। তাহলে দর্শক টানতে পারবে ছবিগুলো।’

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত