শিরোনাম

দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষার্থীদের উপর মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের হামলার অভিযোগ

ঢাবি প্রতিনিধি  |  ২১:০৯, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রাজু ভাষ্কর্যের পাদদেশে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ এই হামলা চালায় বলে অভিযোগ তাদের। তবে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বিষয়টি অস্বীকার করেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা যায়, বেশ কদিন ধরে ক্যাম্পাসে নানা দুর্নীতির অভিযোগে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ব্যানারে ৩ দফা দাবিতে আন্দোলন করছে বাম, ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ ও স্বতন্ত্র জোট। তার ধারাবাহিকতায় আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে বিকালে তাদের কর্মসূচি ছিল।

ঠিক সেই সময়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের পক্ষ থেকে বিএনপি'র নেতা শামসুজ্জামান দুদুর কুশপুত্তলিকাদাহ করা হচ্ছিল।

বিকালে কুশপুত্তলিকাদাহ করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ রাজু ভাষ্কর্য থেকে চলে গেলে সেখানে প্রোগ্রাম শুরু করেন দুর্নীতিবিরোধী ব্যানারের শিক্ষার্থীরা। কিন্তু প্রোগ্রাম শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যেই ফিরে আসেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতারা।

তারা রাজু ভাষ্কর্যে এসে দুর্নীতির ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বলেন, দুদুর কুশপুত্তলিকা রাজু ভাষ্কর্য থেকে না সরাতে। কিন্তু, কুশপুত্তলিকা সরাবে কিনা এই নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাক বিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ঢাবি সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল ঢাবি ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি সালমানকে আঘাত করে। এরপরই দুই পক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ শুরু হয়। সেখানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী সালমান, রাগিব নাইমসহ আরো অনেকে গুরুতর আঘাত পান।

পরে হামলার প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করে দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ সম্পাদক প্রগতি বর্মন তমা বলেন, আমাদের তিন দফা দাবিতে প্রোগ্রাম ছিল অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে। সে সময় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের বিএনপি নেতা শামসুজ্জামান দুদুর কুশপুত্তলিকাদাহ ছিল। এক পর্যায়ে প্রোগ্রাম শেষে তারা চলে যায় একটু পরে তারা আবার ফিরে এসে আমাদের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন এবং জামাল স্যারের নির্দেশে আমিনুল ইসলাম বুলবুল ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি সালমানকে মারধর করে।

পরে হামলার প্রতিবাদে আমরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করি।

এ বিষয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, তাদের সাথে আমাদের কোনো হামলার ঘটনা হয়নি। তাদের নিজেদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে।

আরআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত