শিরোনাম

কয়রায় র‌্যাবের অভিযানে আটক ২

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি  |  ১৮:৫১, অক্টোবর ১০, ২০১৯

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব খুলনা-৬ এর এলিট ফোর্সের সদস্যরা বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার ৪নং কয়রা সরকারি পুকুর পাড়, পল্লী মঙ্গল, উত্তরচক পূর্বপাড়া, মঠবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে নুরহোসেন ও ইয়াছিন নামের সুন্দরবনের দুই সন্দেহভাজন মাছ ব্যবসায়ীকে আটক করে।

জানা গেছে, ৪নং কয়রা এলাকার কয়েকজন মৎস্য ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন ধরে বনদস্যুদের নাম ব্যবহার করে শত শত মাছ ও কাঁকড়া ধরার জেলের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা আদায় করে আসছে।

এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে চিহিৃত চাঁদাবাজ বনদস্যু সহযোগী মাছ ব্যবসায়ীদের পাকড়াও করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রায় সময় ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করছেন।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর ভোর ৬টায় র‌্যাবের একটি দল ৪নং কয়রা সরকারি পুকুর পাড় এলাকায় সুন্দরবনের মাছ ব্যবসায়ী নুরহোসেনের বাড়িতে অভিযান চালায়। তাকে না পেয়ে মোটরসাইকেল চালক আবু মুছা ও জেলে শাহানুরকে র‌্যাব সদস্যরা আটক করে নিয়ে যায়। এক সপ্তাহ পরে আটক দুজন ছাড়া পায়।

নজরদারিতে থাকা ব্যবসায়ী নুরহোসেনকে র‌্যাব খুঁজতে শুরু করেন। একপর্যায়ে সে র‌্যাব কার্যালয়ে হাজির হয়ে নিজের আত্মরক্ষার কথা জানায়।

স্বীকারোক্তি অনুযায়ি আজ ভোররাতে নুরহোসেনকে সাথে নিয়ে র‌্যাব আবারো তার বাড়িতে ও ৪নং কয়রা এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় উত্তরচক পূর্বপাড়া থেকে ইয়াছিন গাজীকে র‌্যাব আটক করে নিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজন জানায়, র‌্যাবের অভিযান আঁচ করতে পেরে সন্দেহভাজন সুন্দরনের মাছ ব্যবসায়ী সাঈদ মোল্লা ও মিন্টুসহ কয়েকজন লাপাত্তা হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, এখানকার কয়েকজন মাছ ব্যবসায়ী বনদস্যু বাহিনীর নাম ব্যবহার করে জেলেদের কাছ থেকে দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা আদায় করছে। এদের নির্মূল করতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এমআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত