ফারহান ইশরাকের আত্মভোজ ও অন্যান্য

 ফারহান ইশরাক  |  ২১:৩৮, জুন ০২, ২০১৯

ফারহান ইশরাকের কবিতা

আত্মভোজ

আঘাত এলে আঘাত করি যেম্নি করে বেঁচে
থাকি এবং কোমলতার স্পর্শে আত্মঘাতী
একমুঠো ক্রোধ আত্মাভিমান তুচ্ছ অস্ত্রপাতি
কে নিতে চাও অহং যেন ময়লা কাপড় কেঁচে
জল মুছে নেয় ঘাম চিহ্ন সাবান সহযোগে
সুস্থ দিনে কিংবা কোনো রোগে

মর্গে তোলার ক্রান্তি বেলায় বলবো বেঁচে আছি
তাজা লোহার পৃষ্ঠা যেমন জং করেছি কেঁদে
এটুকু হয় সচরাচর এটুকু সম্ভব
তবুও কি আস্টেপৃষ্ঠে বেঁধে
দাঙ্গা করে তাড়াতে হবেই রক্তে বসা মাছি?

সকল পাশে চড়িয়ে দিয়ে বড্ড কলরব
(তার অবশ্য পেটের ক্ষুধা মূখ্য সংবিধান
প্রধান সংবেদ)
যেমন পাখা উড়িয়ে নেয় অঙ্গধূলি, ক্লেদ
যা পেয়েছি ফুলে এবং ফলে, একত্রিত সব?

সটান হাতে সরিয়ে দেবে? চাইলে তা-ও পারো
চাঁদের পেটে নষ্ট পাথর যা যা দেখছিলে
ভুল ছিল তা, আসলে ছিল শল্য ঘরের কাঁচি
এই দিয়েই না নিজকে কেটে একটু খেয়ে বাঁচি!

বাস্তু বিধি এমনই তো হয় এতে কিসের ভয়
সার্প ভয়ে সরাবে ব্যাঙ্গাচি?

জন্ম মৃত্যুর ব্র্যাকেট

ব্র্যাকেটের দুই পাশে সম্ভবত রয়ে গেছে সোনা (!)
মধ্য কোটে আটকে আছি এর বেশি কিছুই জানবো না?
যে মুহূর্তে জন্ম হলো সেই থেকে মৃত্যু দশা শুরু
বন্ধনী ছাপিয়ে গেলে জানা নেই চ্যাপ্টা নাকি পুরু-
কোন এলাকা সেইখানে গুঞ্জরিত কোন পরিভাষা
জানার প্রবল তৃষা কোন দ্বীপ কোন উত্তমাশা-

স্বরাঘাতে খুলে দেবে আস্তরিত গাঢ় প্রবেশিকা
বেঁচে থাকা বাক্যাংশ-ই বাকি থাকে অন্যবিধ টীকা।
বাঁকা দুটি যতিরেখা যত্ন করা বাগার্থের খোলে
যেটুকু-বা মূর্ত করে রূপে রসে গন্ধে কিংবা ঝোলে

তার থেকে কতটুকু প্রাত্যহিক জিভের ডগায়
তোলা যায় দিনে রাতে সর্ববিধ এত অন্তরায়!
অর্থ বোধে অনটন রহস্যের এত রক্ত পাত
চাতুরি বা তর্কাঘাতে উল্টে পড়ে শাস্ত্রের দোয়াত!

কূট বাক্যে শব্দকেও উত্তেজিত করি

কবির প্রকৃত দায় শব্দকেও কূট বাক্যে উত্তে-
জিত করা যাতে তার অর্থ সীমা নতুন আয়তনে
বিস্তারিত হতে পারে যদি তার আসন্ন স্খলন
প্রত্যাশিত পুলকে অস্থির
পুরোটা প্রকাশ্য নয় চারিদিকে ঘেরানো প্রাচীর!

বেঞ্চে বসা ছেলেমেয়ে পরস্পর উষ্ণতায় বাঁধা
এরও একটি নাম আছে অপ্রকাশে স্থগিত মাধুরী
সারিবাঁধা সখ্য ভাব খোলা হাতে গুঞ্জরিত চুড়ি
যেন ঠিক ধ্বনি অতিক্রমী
এই কি কবিতা তবে শস্যাঘাতে কম্পমান জমি?

গুলিবিদ্ধ পাখি তার শেষ ডাকে এতই চিৎকার
করে ওঠে রক্ত তীর ভেদ করা আহত জঙ্ঘায়
শিকারীও বিচলিত কামড়েছিল বিষাক্ত পিঁপড়ায়
এরই মধ্যে এত কিছু ঘটে গেছে মুহূর্ত লিপ্সায়

এ ঘটনা সংঘর্ষ প্রবণ
কান্না থেকে শুরু তবে এ-ই তার মৃদু আস্তরণ!