শিরোনাম
গৌরনদীতে মোবাইল ফোনে চাদা দাবি

হত্যার হুমকিতে বন্ধ দশম শ্রেণির ছাত্রের স্কুলে যাওয়া

মোঃ ফারহান হোসেন নান্নু, গৌরনদী (বরিশাল)  |  ১৮:১৫, আগস্ট ১৮, ২০১৯

বরিশালের গৌরনদীতে মোবাইল ফোনে অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীর ৫০হাজার টাকা চাঁদা দাবি ও অব্যাহত হত্যার হুমকির মুখে মোঃ রেদোয়ান হোসেন (১৬) নামের দশম শ্রেণির এক মেধাবী ছাত্রের স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে।

সন্ত্রাসীর অব্যাহত হুমকির মুখে ওই স্কুল ছাত্রের পরিবারের সদস্যরা চরম আতংক রয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার সন্ধ্যায় গৌরনদী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডাইরী (জিডি) করা হয়েছে। অপহরণ ও হত্যার এ হুমকি’র মুখে ওই স্কুল ছাত্র শনিবার বিকেলে তাদের বাড়ি ছেড়ে বন্দর নগরী চট্রগ্রামে তার বড় ভাইয়ের বাসায় আশ্রয় নিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের সিংগা গ্রামে।

চাঁদাবাজ সন্ত্রাসীর হুমকির শিকার ওই গ্রামের পানচাষী মোঃ শাহজাহান খানের বড় ছেলে বন্দর নগরী চট্রগ্রামের একটি সিএন্ডএফ ফার্মের কর্মী মোঃ মেহেদী হাসান খান জানান, গত ২৯ জুলাই সন্ধ্যার পরে ০১৩১৯৭০৭৩৭৮ নম্বরের একটি মোবাইল ফোন থেকে অজ্ঞাতনামা এক সন্ত্রাসী তার বাবা’র মোবাইল নম্বরে ফোন করে ৫০হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।

চাঁদার এ টাকা দেয়া না হলে তারা শাহজাহান খানের ছোট ছেলে ও উপজেলার চন্দ্রহার কেআর শিক্ষায়তন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির মেধাবী ছাত্র মোঃ রেদোয়ান হোসেন (১৬)কে অপহরণ করে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। এ ঘটনায় শাহজাহান খান তার স্ত্রী রাসিদা বেগম ও পরিবারের সদস্যরা আতংকিত হয়ে পড়েন। ফলে গৃহকর্তা শাহজানান খান তার ছোট ছেলে মোঃ রেদোয়ান হোসেনের স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেন।

এক পর্যায়ে আতংক গ্রস্থ শাহজাহার খান তার বড় ছেলে সিএন্ডএফ ফার্মের কর্মী মোঃ মেহেদী হাসান খানকে তার কর্মস্থল ছেড়ে বাড়িতে আসতে খবর দেন। সদ্য সমাপ্ত ঈদুল আজাহার ছুটিতে বাড়ি ফিরে বড় ছেলে মোঃ মেহেদী হাসান খান বিস্তারিত ঘটনা জানার পর গত ১৪ আগস্ট গৌরনদী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডাইরী (জিডি) করেন।

মেহেদী হাসান তাদের বাড়িতে থাকা অবস্থায় গত ১৬আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ০১৯০৭২৯৫১৬৯ মোবাইল নম্বরের অপর একটি মোবাইল ফোন থেকে পূনরায় ওই অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসী মেহেদীর বাবা পানচাষী শাহজাহান খানের নম্বরে নম্বরে ফোন দিয়ে জানায় যে, তার দাবিকৃত চাঁদার টাকা দেয়া না হলে সে শাহজাহান খানের ছোট ছেলে দশম শ্রেণির মেধাবী স্কুল ছাত্র রেদোয়ানকে তাদের বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে নিয়ে হত্যা করবে।

এ সময় ফোনদাতা ব্যক্তি মেহেদী হাসানকেসহ তার বাবা-মা ও ছোট ভাইকে অস্লীল ভাষায় গালি গালাজ করে। অজ্ঞাতনানা সন্ত্রাসীর এ অব্যাহত হুমকির ঘটনাটি শনিবার দুপুরে পূনরায় গৌরনদী মডেল থানাকে অবহিত করেন সিএন্ডএফ ফার্ম কর্মী মোঃ মেহেদী হাসান। কিন্তু পুলিশ তাদের নিরাপত্ত্বার কোন উদ্যোগ নেয়নি।

সিএন্ডএফ ফার্ম কর্মী মেহেদী হাসান খান বলেন, কারা এবং কি কারণে আমাদেরকে এ হুমকি দিচ্ছে তা আমি জানিনা। তাদের মূল উদ্দেশ্য কি চাঁদা নেয়া, নাকি অন্য কিছু তাও বলতে পারছি না। তিনি আক্ষেপের সুরে বলেন, থানা পুলিশ এ ঘটনায় তড়িৎ কোন ব্যাবস্থা না নেয়ায় নিরাপত্তার অভাবে আমি আমার ছোট ভাই রেদোয়ানকে নিয়ে শনিবার বিকেলে রওনা হয়ে চট্রগামে চলে এসেছি।

মেহেদী হাসানের মা, শাহজাহান খানের স্ত্রী রাসিদা বেগম জানান, জমি-জমা নিয়ে প্রতিবেশীদের সাথে আমাদের দীর্ঘদিনের বিরোধ রয়েছে। এ কারণে কেউ হয়ত ভয় দেখাতে আমাদের কাছে চাঁদা চাইতেছে ও আমার ছোট ছেলেকে অপহরণ করে হত্যা করার হুমকি দিতেছে।

গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ গোলাম সরোয়ার জানান, এ ঘটনায় মোবাইল কললিস্ট ধরে চাঁদা দাবিকারী হুমকি দাতাকে সনাক্ত ও আটক করতে থানা পুলিশের তদন্ত চলছে।

এমআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত