শিরোনাম

মারাত্মক পানি সংকটে ১৭ আরব রাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  |  ১৮:২৯, জুন ১৬, ২০১৯

আরব দেশগুলোতে পানিস্বল্পতা কঠিন সংকটের কারণ হয়ে দেখা দিচ্ছে। জাতিসংঘের তথ্য মতে বর্তমানে আরব দেশগুলোর প্রায় সাড়ে ছয় কোটি নাগরিক পান করার জন্য পরিস্কার পানি থেকে বঞ্চিত।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম উর্দু নিউজে প্রকাশিত প্রতিবেদন মতে গত ২২ মে থেকে আরবের ১৭টি দেশে পানিস্বল্পতার সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।

আন্তর্জাতিক জরিপ মতে প্রতি বছর জনপ্রতি ৬ হাজার কিউবিক মিটার পানির প্রয়োজন হয়। জাতিসংঘের অনুমান মতে জনপ্রতি কমপক্ষে অন্তত ১ হাজার কিউবিক মিটার পানির প্রয়োজন হয়। সেখানে আরবের নাগরিকরা জনপ্রতি ৫০০ কিউবিক মিটারের চেয়েও কম পানি পেয়ে থাকেন।

অপরদিকে আরব দেশগুলোতে গৃহযুদ্ধ, ঋতু বদল ও  জনপদ বৃদ্ধির ফলে পানির সংকট দিনদিন বাড়ছেই।

জাতিসংঘ পানি স্বল্পতা বিষয়ে আন্তর্জাতিক সচেতনতা বাড়াতে বিশেষ কর্মসূচি শুরু করেছে। কর্মসূচির নাম দিয়েছে, টেকসই উন্নয়নের জন্য পানি। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া এ কর্মসূচিটি ২০২৮ সাল পর্যন্ত চলবে।

এ কর্মসূচির কার্যক্রম হিসেবে প্রতি বছর পরিস্কার ও নিরাপদ পানি বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধি করা হবে। বিভিন্ন জরিপের মাধ্যমে দেখানো হবে, কোন বছর কোথায় নিরাপদ পানির স্বল্পতা কতটুকু হতে পারে। পানি স্বল্পতার সংকট দূর করার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণও এ কর্মসূচির একটি অংশ।

আরব ওয়াটার কাউন্সিলে গভর্নর কাউন্সিলের সদস্য ডক্টর খালেদ আবু যায়েদ ‘আল মাজাল্লাহ’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, আরব লীগের অধীনে আরব ওয়াটার কাউন্সিলের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে পানির উৎস, ঘাটতি ও অপব্যয় বিষয়ে তদন্ত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ২২টি আরব দেশে পরিচালিত ৩ বছরব্যাপী একটি গবেষণার পর পানি বিষয়ক বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতিবেদনটিতে আরব দেশগুলোতে পানির সংকট আরো গুরুতর হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

এ সংকট থেকে বাঁচতে অপ্রাকৃতিক উৎস থেকে পানি সংগ্রহের পরামর্শ দিয়েছেন পরিবেশ বিষেশজ্ঞরা।

এ বিষয়ে ডক্টর গানেম বলেন, এর জন্য মাটির নিচে পানির খনি অনুসন্ধানে রিমোট সাইন্স টেকনোলজি ব্যবহার করতে হবে। পানির খনি অনুসন্ধানে স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবির সাহায্য নেয়া যেতে পারে।

তিনি বলেন, সংকট কাটাতে চাষাবাদ ও ঘরোয়া কাজে ব্যবহৃত পানি দ্বিতীয়বার ব্যবহারের উপযোগী করে তোলার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

এসএস

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত