শিরোনাম

বন্ধুর সুন্দরী বউকে বিয়ে করতে না পেরে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  |  ১৮:২৬, জুন ২৬, ২০১৯

বন্ধুর সুন্দরী বউকে বিয়ে করতে না পেরে হত্যা করেছে এক যুবক।

ট্রেন লাইনের ধারে ইঁটের আঘাতে বন্ধুকে খুন করার পিছনে সেই যুবকের মাথায় ছিল তাঁর স্ত্রীর ওপর শারীরিক আকর্ষণ।

বন্ধুর স্ত্রীকে বিয়ে করতে চাওয়াতেই শেষ অবধি বন্ধুকে নির্মমভাবে খুন করেছে যুবক। পুরো ঘটনায় স্তম্ভিত সবাই। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দিল্লিতে।

গুলকেশ নামের সেই খুনি যুবক গতকাল তাঁর বন্ধু বছর ৩০ এর দলবীরকে গল্প করতে ডাকে।

গল্প করার ছলে দলবীরকে সে জাখিরা নামের এক রেলস্টেশনের সামনে নিয়ে যায়। সেই স্টেশনের নির্জন ট্র্যাকের সামনে ইঁট দিয়ে আঘাত করে দলবীরকে সে খুন করে।

খুনের পর প্রমাণ লোপাটের চেষ্টায় গুলকেশ তাঁর বন্ধু দলবীরের মৃতদেহ ট্রেনলাইনের ওপর ফেলে দেয়। যাতে সবাই ধরে নেয় দলবীর লাইন পের হতে গিয়ে ট্রেনে চাপা পড়ে মারা গিয়েছে।

দলবীর খুনের তদন্তে নেমে গুলকেশকে সন্দেহ হয় পুলিশের। পুলিশের জেরার সামনে নানাভাবে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে গিয়ে বিভ্রান্তমূলক কথা বলতে থাকে গুলকেশ। তাতে তার ওপর সন্দেহ বাড়ে পুলিশের।

গুলকেশের মোবাইল ফেন চেক করে ও কল রেকর্ড ঘেঁটে দলবীরকে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ নিশ্চিত হয়। জেরার শেষের দিকে খুনের কথা স্বীকার করে নেয় গুলকেশ।

জেরার সে জানায় দলবীরের সুন্দরী স্ত্রী রেখা-কে (নাম পরিবর্তন করা হয়েছে) সে বিয়ে করতে চাওয়াতেই সে এই খুন করেছে।

বন্ধুর মৃত্যুর পর সে তার স্ত্রী রেখাকে বিয়ে করে ফেলতে বলে গুলকেশ জানায়। দলবীরের স্ত্রীর ভূমিকার কথা তদন্ত করছে পুলিশ।

এমএআই

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত