শিরোনাম

বিশ্বের সবচেয়ে দুর্গন্ধযুক্ত ও মূল্যবান ফলের গল্প

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ২০:০১, জুন ১৪, ২০১৯

বিশ্বের সবচেয়ে দুর্গন্ধযুক্ত ও মূল্যবান ফলের গল্প
থাইল্যান্ডের একটি ফলকে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি দুর্গন্ধযুক্ত ফল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। কিন্তু অদ্ভূত ব্যাপার হলো, বিশ্বের সবচেয়ে দুর্গন্ধযুক্ত এ ফলটিকেই সবচেয়ে মূল্যবান ফল হিসেবে ধরা হয়।

বাংলাদেশের কাঁঠালের মতো দেখতে হুবহু ফলটি এতো চড়া মূল্যে বিক্রি হয়েছে, শুনলে রমজানে উচ্চমূল্যে কিনে খাওয়া ফলের দুঃখও ভুলে যাবেন বাঙালি।

 থাইল্যান্ডের ফলের রাজা ডুরিয়ান আশ্চর্য মূল্যে বিক্রি হয়েছে সম্প্রতি। এক নিলামের সময় একটিমাত্র ফল ৪৮ হাজার মার্কিন ডলারে বিক্রি হয়েছে।

ডুরিয়ান বিশ্বের সবচয়ে মূল্যবান হওয়ার পাশাপাশি সবচেয়ে দুর্গন্ধযুক্ত ফল হিসেবেও পরিচিত। প্রচণ্ড দুর্গন্ধের কারণে বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রেই বিভিন্ন পাবলিক পরিবহন, হোটেল ও বিমানে এটি বহন করা নিষিদ্ধ।

মিডিয়া প্রতিবেদন মতে রাজকীয় এ ফলটি থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত কিং অফ ডুরিয়ান ফেস্টিভালে চড়া মূল্যে বিক্রি হয়েছে। স্থানীয় বাগান থেকে ফলটিকে একদিন আগে মেলায় তোলা হয়।

সাধারণত ফলটি ৫০ থেকে ১০০ ডলারে পাওয়া যায়।

দুর্গন্ধযুক্ত ফলটির কিছু গল্প এমন। ইন্দোনিশিয়ায় এক সমুদ্র ভ্রমণে যাত্রীদের অভিযোগে পথিমধ্যেই জাহাজ নোঙর করতে হয়। করণ জাহাজটিতে বিপুল পরিমাণ ডুরিয়ান ছিল।

অস্ট্রেলিয়ার একটি ইউনিভার্সিটির সব শিক্ষক-শিক্ষার্থী ক্যাম্পাস ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন। কারণ ক্যাম্পাসে একটি নষ্ট ডুরিয়ানের গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছিল।

এতটুকুতেই বোঝা যায় ফলটির দুর্গন্ধ কতটা ভয়ঙ্কর। আবার ফলটির দামের কথা শুনলেও যে কেউ অবাক হতে বাধ্য।

ফলটি এমন অসম্ভব দুর্গন্ধযুক্ত হওয়ার পরও গ্রাহকদের কাছে এর গ্রহণযোগ্যতা ও কদরের মূল কারণ হলো এটির স্বাস্থ্যগত উপকারিতা। গ্যাসট্রিক, হার্টের দুর্বলতা, ব্লাড প্রেসার, দ্রুত বুড়িয়ে যাওয়া, অনিদ্রা, যৌন দুর্বলতা, হাড় ক্ষয়, অতিমাত্রায় রক্তশূন্যতাসহ আরো অনেক রোগের জন্য ফলটি বেশ কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে।

এসএস

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত