শিরোনাম

রাইড শেয়ারিংয়ে যাত্রী সংকট

প্রিন্ট সংস্করণ॥নুর মোহাম্মদ মিঠু  |  ০৯:০৪, আগস্ট ১০, ২০১৯

ঈদের ছুটিতেও সেবা দিতে প্রস্তুত দেশের রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠানগুলো। বর্তমানে অ্যাপসভিত্তিক রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান উবার, পাঠাও, সহজ, ইজিয়ার, ওভাইসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান এই সেবা দিচ্ছে। পণ্য পরিবহনেও ‘ট্রাক লাগবে’সহ রয়েছে একাধিক প্রতিষ্ঠান।

ঈদের ছুটিতে ফাঁকা রাজধানী, শহরতলী ও দেশের বিভিন্ন জায়গায় অ্যাপসের মাধ্যমে এসব প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সেবা অব্যাহত রাখবে বলে জানা গেছে। তবে রাইডারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, স্বাভাবিকের তুলনায় ঈদের ছুটিতে রাইডিং সেবা গ্রহীতারা প্রায় অর্ধশতাংশের মতো কমমূল্যে ভাড়ায় এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাতায়াত করতে পারবেন সহজেই।

আসন্ন ঈদুল আজহার ছুটি কাটাতে যান্ত্রিক নগরী রাজধানী ঢাকা ছেড়ে নাড়ির টানে গ্রামে ফেরার লক্ষ্যে বাসা থেকে বের হয়ে বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ড (মহাখালী, গাবতলী, গুলিস্তান ও সায়েদাবাদ), সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল এবং কমলাপুর রেলস্টেশনে যেতে এসব রাইড শেয়ারিং সেবা গ্রহণ করছে মানুষ।

তবে রাজধানী যতই ফাঁকা হচ্ছে সেই সঙ্গে রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠানগুলোও পড়ছে যাত্রী সংকটে। ঈদ পরবর্তী ছুটির দিনগুলোতেও যাত্রী সংকটে ভুগবে এসব প্রতিষ্ঠানগুলো।

সংশ্লিষ্ট রাইডাররা জানায়, যাত্রী সংকটে পড়লেও ঈদের আগ পর্যন্ত চাঙ্গা অবস্থানেই রয়েছে তারা, অন্যদিকে ট্রাক লাগবেসহ একাধিক পণ্যপরিবহন প্রতিষ্ঠানগুলোও ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে গরু আনা-নেয়ার কাজে চাঙ্গা ব্যবসা করে যাচ্ছে। তবে তাদের এ অবস্থান থাকবে গরু বেচা-কেনার শেষদিন পর্যন্ত।

গুলিস্তান মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে ওঠার সময় কথা হয় পাঠাওয়ের কয়েকজন রাইডারের সঙ্গে। তারা জানান, গতকাল পর্যন্তও আশানুরূপ যাত্রী পেয়েছেন তারা। তবে আজ শনিবার থেকে এ সংখ্যা কমতে থাকবে বলে ধারণা করছেন তারা।

ঈদের একদিন আগে এবং ঈদ পরবর্তী ছুটির দিনগুলোতেও যাত্রী সংকটে পড়বেন বলে জানিয়েছেন তারা। তাদের কেউ কেউ বলছেন, ঈদের ছুটির পর রাজধানীতে পূর্বের অবস্থা না ফেরা পর্যন্ত তারা সেবা থেকে বিরত থাকবেন। অন্যরা বলছেন, যাই পাওয়া যায়- তা নিয়েই রাইড দিয়ে যাবেন তারা।

এদিকে এখন পর্যন্ত পাঠাও-উবার কিংবা সহজ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ঈদ উপলক্ষে কোনো নির্দিষ্ট অফারের ঘোষণা না থাকলেও সেবা অব্যাহত থাকবে বলে জানায়। উবারের এ দেশীয় জনসংযোগ প্রতিষ্ঠান বেঞ্চমার্ক পিআর বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায়, আসন্ন ঈদুল আজহায় তাদের সেবা প্রদান অব্যাহত থাকবে।

পাঠাও কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ইজিয়ার নামের অপর একটি রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ডিসকাউন্ট অফার ঘোষণা করেছে। যে অফারের আওতায় ইজিয়ার ট্রিপে সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা পর্যন্তও ছাড় পাওয়া যাবে।

এ ছাড়াও, ওয়েটিং চার্জ, টোল ফি ও হিডেন চার্জ না থাকার নিশ্চয়তা দিয়েছে তারা। ইজিয়ারের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ মেহেদী হাসান ইমন গণমাধ্যমকে জানান, এই ঈদে বাড়ি ফিরতে বিশেষ সেবা নিয়ে হাজির হচ্ছেন তারা। ঈদে ইজিয়ারে বাড়ি যেতে চাইলে দেশের যেকোনো স্থানে পৌঁছে দিচ্ছেন তারা।

আন্তঃজেলা রাইড শেয়ারিং সেবা দেয়ার পাশাপাশি অ্যাম্বুলেন্স সেবাও দিয়ে থাকে এ প্রতিষ্ঠান। এদিকে পণ্য পরিবহন প্রতিষ্ঠান ট্রাক লাগবে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাদের সব কর্মকর্তা ছুটিতে রয়েছেন বলে জানায় হেল্পলাইনের আসিফ নামের এক কর্মকর্তা।

জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঈদুল আজহা উপলক্ষে আশানুরূপ ট্রিপ পাচ্ছেন তারা। দেশের সব স্থানেই এ সেবা দিচ্ছেন তারা। তবে গরু বেচাকেনার শেষদিন পর্যন্ত আশানুরূপ ট্রিপ পেলেও বাজার শেষে তা আর পাওয়া যাবে না বলেও জানান তিনি। সহজ রাইড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঈদে সহজ রাইড সেবা অব্যাহত রাখবে। ঈদ উপলক্ষে বিশেষ কিছু অফারও ঘোষণা করেছে সহজ কর্তৃপক্ষ।

ঈদে তাদের অ্যাপস ব্যবহার করে যারা গ্রামের বাড়িতে যাবেন, তাদের জন্য রয়েছে বিশেষ অফার। এদিকে উবার রাইডার রায়হান নামের একজন জানান, সাধারণত অফিস টাইমে মোহাম্মদপুর থেকে গুলশান যেতে চারশ থেকে সাড়ে চারশ টাকা পর্যন্ত ভাড়া ওঠে। সে হিসাবে ঈদের ছুটিতে ফাঁকা ঢাকায় এ ভাড়া অর্ধশতাংশ কমে আসবে বলে জানান তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত