শিরোনাম

বন্ধ করা হল ২১ লাখ সিম কার্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ০৩:৪২, এপ্রিল ২৬, ২০১৯

শুক্রবার মধ্যরাতে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে অবৈধ প্রায় ২১ লাখ সিম কার্ডের সংযোগ। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট অপারেটরদের আগেই নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বিটিআরসির নির্দেশনায় ছিল- একই জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে ১৫টির বেশি নিবন্ধিত সিম রাখা যাবে না।
কিন্তু দেখা গেছে, একই পরিচয়পত্রে নিবন্ধিত সিমের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২১ লাখ। এসব সিম শুক্রবার মধ্যরাতে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন, মোট ২০৪৯,৯২৭টি সিম কার্ডের সংযোগ বন্ধ করা হয়েছে। “আইন অনুযায়ী এই সিমগুলো বাজারে থাকতে পারে না। তাই এগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বিটিআরসির সূত্রগুলো জানায়, একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে সর্বোচ্চ ১৫টি মোবাইল সংযোগ নেওয়া যায়। এই সীমা অতিক্রম করে যেসব সিম কার্ড রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে সেগুলোই এখন বন্ধ করে দেওয়া হবে।

বন্ধ হওয়া সিম কার্ডগুলোর মধ্যে গ্রামীণফোনের ৪৬১,২৬১টি, বাংলালিংকের ৪৫৫,৮৩১টি ও রবির ৪১৯,২০২টি এয়ারটেলের ২২৫,৭৪১টি ও টেলিটকের ৪৮৭,৮৯২টি।

বিটিআরসির বক্তব্য, অবৈধ সিমের একটি তালিকা তারা আগেই তৈরি করেছিলেন। এই সিমগুলো ২৬ এপ্রিলের আগেই বন্ধ করে দেয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

এর আগে ২০১৭ সালের নভেম্বরে বিটিআরসি একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে সর্বোচ্চ ১৫টি সিম কার্ডের সীমা নির্ধারণ করে দেয়। তার আগে একজন সর্বোচ্চ ২০টি সিম কার্ড নিতে পারতেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত