শিরোনাম

১০ হাজার টাকায় মার্কেটসেরা ৬টি স্মার্টফোন

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৪:০৮, জুন ১৪, ২০১৯

সবার হাতে হাতেই এখন শোভা পায় স্মার্টফোন। আজকাল এটি ছাড়া আমাদের চলছেই না। তাই সাধ্যের মধ্যে সবাই খুঁজছেন ভালো একটি স্মার্টফোন। কিন্তু অনেকের বাজেট থাকে কম। কম প্রাইজের মধ্যে তারা একটি ভালো ফোন খুঁজেন। আসুন দেখে নেই ১০ হাজার টাকার মধ্যে কোন ফোনগুলো আপনি নিতে পারেন।

শাওমি রেডমি-৬এ

১০ হাজার রেঞ্জের মধ্যে দারুন একটি স্মার্টফোন শাওমি রেডমি-৬এ। সাড়ে পাঁচ ইঞ্চির এইচডি এলসিডি ডিসপ্লেযুক্ত ফোনটিতে রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম, ১৬ জিবি রম যা ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়।

ফোনটির মেডিয়াটেক হেলিও এ-২২ চিপসেটে রয়েছে ২.০ গিগাহার্জ করটেক্স এ-৫৩ প্রসেসর চিপ। রেডমি-৬এ’তে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যমেরা ও ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

৩ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম (নন-রিমুভঅ্যাবল) ব্যাটারির এই ফোনটি ৪জি ইন্টারনেট ফ্রিকোয়েন্সিতে চলতে সক্ষম। ফোনটির দাম ৯৪৯৯ টাকা।

নোকিয়া ২.১

১৭৪ গ্রাম ওজনের হালকা নোকিয়ার এই ফোনটিতে রয়েছে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চির হাইরেজুলেশন ডিসপ্লে। এর স্টোরেজ অপশনে রয়েছে ১জিবি র‌্যাম ও ৮জিবি রম।

কোয়ালকম এমএসএম-৮৯১৭ স্ন্যাপড্রাগন-৪২৫ চিপসেটে বসানো রয়েছে চার কোর বিশিষ্ট ১.৪ গিগাহার্জের করটেক্স এ-৫৩ প্রসেসর। ৮ মেগাপিক্সেল এলইডি ফ্ল্যাশলাইটের সাথে রিয়ার ক্যামেরার সাথে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।

নোকিয়া ২.১ এর পাওয়ার ব্যাকআপ দারুন। ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারির এই স্মার্টফোনটি চলে অ্যান্ড্রয়েড ওএস ৮.০ অপারেটিং সিস্টেমে। ৪জি নেটওয়ার্ক সমর্থনকৃত এই ফোনটির দাম ৯৯৯৯ টাকা।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জে-২ প্রাইম

স্যামসাং গ্যালাক্সি জে-২ প্রাইম এ রয়েছে ১.৫ জিবি র‌্যাম এবং ইন্টারনাল স্টোরেজ। এতে এক্সটার্নাল স্টোরেজে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত মাইক্রোএসডি কার্ড সাপোর্ট করে। ৮ মেগাপিক্সেল এইচডি রিয়ার ক্যামেরার সাথে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরায় ৭২০পিক্সেল মানের ভিডিও করা যায়।

৪জি নেটওয়ার্ক সমর্থনযোগ্য এই স্মার্টফোনটির ২ হাজার ৬০০মিলিঅ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ফোনকে ৫৯ ঘন্টা স্ট্যান্ডবাই রাখে এবং ১২ ঘন্টা পর্যন্ত টানা ৩জি কলের নিশ্চয়তা দেয়।

এর মিডিয়াটেক এমটি-৬৭৩৭টি চিপসেটে কোয়াডকোর ১.৪ গিগাহার্জ কর্টেক্স এ-৫৩ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। অপারেটিং সিস্টেমে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ মার্শমেলো। ফোনটির বর্তমান মূল্য ৯৪৯০ টাকা।

হুয়াওয়ে ওয়াই-৫

৫ ইঞ্চির হাই রেজুলেশন এলসিডি ডিসপ্লে’র ফোনটিতে রয়েছে ২ গিগাবাইট র‌্যাম এবং ১৬ গিগাবাইট ইন্টারনাল স্টোরেজ যা ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়। এর মিডিয়াটেক এমটি৬৭৩৭টি সকেটে ৪ কোর বিশিষ্ট ১.৪ গিগাহার্জ কর্টেক্স এ-৫৩ প্রসেসর রয়েছে।

৮মেগাপিক্সেল অটোফোকাস রিয়ার ক্যামেরা বিপরীতে রয়েছে ৫মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। এর ৩ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ভাল ব্যাকআপ দেয়। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড এম ওএস ৬.০ ভার্সনের সফটওয়্যারে চলে। ফোনটি দেশের বাজারে ৯৫৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

ওয়াল্টন প্রিমো আরএম-৫

দেশী ব্র্যান্ড ওয়ালটনের এই মডেলের ফোনটি প্রায় পৌনে ৬ ইঞ্চির এইচডি রেজুলেশনের এলসিডি ডিসেপ্লযুক্ত ফোন। এর ইন্টারনাল স্টোরেজে রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম ও ১৬ জিবি রম যা ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব।

এতে রয়েছে ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াডকোর প্রসেসর চিপ। এর ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ও ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উভয়ের সাথেই রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ লাইট। ৩ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি ভাল ব্যাকআপ দেয়।

অ্যান্ড্রয়েড ওএস ৮.১ চালিত এই স্মার্টফোনটি ৪জি নেটওয়ার্ক সমর্থন করে। ফোনটির বাজারমূল্য ৯৯৯৯টাকা।

সিম্ফনি আই-১২০

প্রায় সাড়ে পাচঁ ইঞ্চির ফুল ভিশন এইডি ডিসপ্লে’র স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম ও ১৬ জিবি রম যা ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়। এর ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ও ৮মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উন্নত মানের ছবি প্রদান করে।

ফোনটির ১.৫ গিগাহার্জ কোয়াডকোর প্রসেসরের সাথে রয়েছে আইএমজি ৮এক্সই জিপিইউ। এর ৩ হাজার ২০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ভাল ব্যাকআপ দেয়।

৪জিবি নেটওয়অর্ক সমর্থিত স্মার্টফোনটির বাড়তি ফিচার হলো এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, জিন্সেন্সর, লাইটসেন্সর ও জিপিএস সুবিধা রয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ওএস ৮.১ চালিত ফোনটি দেশের প্রযুক্তি বাজারে ৯ হাজার ৯৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

মার্কেট ভেদে এই প্রাইজ কিছুটা কমেও পেতে পারেন। তাই যারা কম প্রাইজের মধ্যে স্মার্টফোন খুঁজছেন দ্রুত নিয়ে নিতে পারেন এই ফোনগুলো। 

আরআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত