শিরোনাম

কাশ্মীরে আছে একখণ্ড বাংলাদেশ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   |  ০৯:০৪, আগস্ট ২৪, ২০১৯

পৃথিবীর স্বর্গ বলা হয় কাশ্মীরকে। এর সৌন্দর্য বরাবরাই সবকিছুর উর্ধ্বে। যে কারণে পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ এই কাশ্মীর।

পৃথিবীর অন্যতম এ সুন্দর অঞ্চলে রয়েছে বাংলাদেশ নামের একটি গ্রাম। যা অনেকেরই অজানা।

কাশ্মীরের বিখ্যাত হ্রদ উলার তীরে অবস্থিত বাংলাদেশ গ্রাম। সবুজ শ্যামলে ঘেরা ঠিক বাংলাদেশের প্রকৃতির মতোই আকর্ষণীয়। চোখ জুড়িয়ে যায় মুহূর্তেই। তিন দিকে পানি আর একদিকে সুউচ্চ পর্বত, সেই সাথে সবুজ প্রকৃতি আর বরফে অসাধারণ এক নয়নাভিরাম গ্রাম ‘বাংলাদেশ’।

কাশ্মীরজানা যায়, গ্রামটির অবস্থান কাশ্মীরের বান্ডিপুরা জেলায়। বান্ডিপুরার আলুশা তহশিলে ‘বাংলাদেশ’ নামক গ্রামটি খুব একটা পরিচিত নয় এখনো। সোপুর-বান্ডিপুরা সড়কের পাশেই এই গ্রামটির দেখা পাওয়া যায়। বান্ডিপুরা থেকে পাঁচ কিলোমিটার পথ পেরোলেই খোঁজ পেয়ে যাবেন এই গ্রামের।

গ্রামটির নাম কেন ‘বাংলাদেশ’? এর পেছনের গল্পটি বেশ করুণ। ১৯৭১ সালে জুরিমন নামের এক গ্রামে কয়েকটি ঘরে আগুন লাগে। গৃহহারা হয়ে অসহায় হয়ে পড়েন এই মানুষগুলো। পুড়ে যাওয়া জায়গা থেকে খানিকটা দূরে একটি ফাঁকা জায়গায় সবাই নতুন করে ঘর তুলে বসবাস শুরু করেন।

Related imageসে বছর বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে। একই সময়ে এই গৃহহীন মানুষগুলো তাদের নতুন জীবন শুরু করেন। দুঃসময় মোকাবিলা করে জয়ী হওয়ার বাসনায় তারা তাদের নতুন গ্রামটির নাম রাখেন বাংলাদেশ।

Related imageদীর্ঘ সময় পর মিলেছে এই নামের স্বীকৃতি। ২০১০ সালে বান্ডিপুরা ডিসি অফিস বাংলাদেশ নামটিকে স্বীকৃতি দিয়ে এটিকে স্বতন্ত্র গ্রামের মর্যাদা দেন। ৫-৬টি ঘর দিয়ে যাত্রা শুরু হলেও বাংলাদেশ নামক গ্রামটিতে এখন ঘরের সংখ্যা অর্ধশতেরও বেশি।

Image result for kashmir fish boatমূলত মাছ ধরাই এই গ্রামের মানুষের প্রধান জীবিকা। এছাড়া অনেকেই বাদাম সংগ্রহ করেও জীবিকা চালান।

আরআর

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত