মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

১৩ ফাল্গুন ১৪২৬

ই-পেপার

প্রিন্ট সংস্করণ॥নিজস্ব প্রতিবেদক

জানুয়ারি ২৯,২০২০, ০১:৫৭

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ১০:০৯

আটক সাবেক কর্মচারী রিমান্ডে

ঢাকার বনানীতে আড়ংয়ের ট্রায়াল রুমে এক নারী বিক্রয়কর্মীর গোপন ভিডিও ধারণের ঘটনায় সাবেক এক বিক্রয় প্রতিনিধিকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট। সিরাজুল ইসলাম ওরফে সজীব নামের ওই যুবককে গত শনিবার তার শেওড়াপাড়ার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে রিমালে নেয়া হয়। সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহকারী কমিশনার ধ্রুব জ্যোতির্ময় গোপ গণমাধ্যমকে বলেন, গ্রেপ্তার সজীব আড়ংয়ের ওই শাখাতেই এক সময় কাজ করতেন। রিমালে তিনি অনেক তথ্য দিয়েছেন। এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, সজীব গত ১১ জানুয়ারি রাতে ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে এক তরুণীকে ট্রায়াল রুমে তার পোশাক পরিবর্তনের ভিডিও পাঠান। এরপর ১৬ জানুয়ারি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন ওই তরুণী। মামলার অভিযোগের ভিত্তিতে সাইবার ক্রাইম ইউনিট শনিবার সজীবকে গ্রেপ্তার করে। তার কাছে আরও অন্তত দশজন তরুণীর পোশাক পরিবর্তনের ভিডিও পাওয়া যায়। জবানবন্দি দেয়ার জন্য তাকে আদালতে তোলার কথা রয়েছে। এদিকে আড়ংয়ের চিফ অপারেটিং অফিসার আশরাফুল আলম এক বিবৃতিতে বলেন, গত বছরের ডিসেম্বরে তাদের বনানী শাখার একজন বিক্রয় প্রতিনিধকে ‘যৌন হয়রানিমূলক কর্মকাণ্ডের’ অভিযোগ করলে অভ্যন্তরীণ তদন্তের ভিত্তিতে সিরাজুল ইসলাম সজীবকে চাকরিচ্যুত করা হয়। সিরাজুল ইসলাম সজীবের বিরুদ্ধে বনানী আউটলেটের বর্তমান একজন বিক্রয় প্রতিনিধির করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলার ব্যাপারে আমরা অবহিত আছি এবং এ মামলাটি দায়ের করার ব্যাপারে অভিযোগকারীকে শুরু থেকেই সর্বাত্মক সহায়তা করে আসছি। তিনি বলেন আড়ং যৌন হয়রানিমূলক যে-কোনো কর্মকালের বিরুদ্ধে নীতিগতভাবে সর্বদা কঠোর অবস্থানে থাকে এবং এ ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িত আড়ংসংশ্লিষ্ট যে কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠীকে কঠোর হাতে দমন করার জন্য তৎক্ষণাৎ পদক্ষেপ গ্রহণ করে। চলমান মামলাটির কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে আড়ংয়ের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা করা হচ্ছে বলেও জানানো হয় বিবৃতিতে। আমারসংবাদ/এসটিএমএ