শনিবার ১১ জুলাই ২০২০

২৭ আষাঢ় ১৪২৭

ই-পেপার

নিজস্ব প্রতিবেদক

নভেম্বর ১৪,২০১৯, ০৭:৩২

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ১০:০৯

ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর অপসারণ চায় ছাত্রসেনা ও তরীকত

বিতর্কিত বক্তব্যের জের ধরে সমালোচনায় ভাসছেন আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, ধর্ম প্র‌তিমন্ত্রী শেখ মুহাম্মদ আবদুল্লাহ। তার অপসার‌ণের দা‌বি‌তে ঢাকা জেলা প্রশাসক‌কে স্মারক‌লি‌পি দি‌য়ে‌ছে ছাত্র সংগঠন বাংলা‌দেশ ইসলামী ছাত্র‌সেনা। বৃহস্প‌তিবার (১৪ নভেম্বর) সংগঠন‌টির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইমরান হুসাইন তুষার ঢাকা জেলা প্রশাস‌ক আবু ছালেহ মুহাম্মদ ফোর‌দৌস খা‌নের হা‌তে এ‌ স্মারকলিপি তুলে দেন। এসময় সংগঠ‌নের কেন্দ্রীয় নেতা মুহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, ইয়াহইয়া বিন সিদ্দিকী, রিদওয়ান সাজ্জাদ, ইয়াছিন রা‌সেল প্রমুখ উপ‌স্থিত ছি‌লেন। রাষ্ট্রীয় খরচে আলেমদের হজ করানোর প্রসঙ্গে বক্তব্য দিতে গিয়ে এক জায়গায় অনেক আলেমের সমালোচনাকে কুকু‌রের ঘেউ ঘেউ এর স‌ঙ্গে তুলনা করেন তিনি। যা নিয়ে তীব্র সমালোচনা সৃষ্টি হয়। এর প্রেক্ষিতে তিনি দুঃখও প্রকাশ করেন। ইসলামী ছাত্রসেনার দাবি, প‌বিত্র হ‌জের অবমাননা করা হয়েছে তার বক্তব্যে। এ অ‌ভি‌যো‌গে ধর্মপ্র‌তিমন্ত্রীর অপসার‌ণের দা‌বি‌তে ছাত্র‌সেনা আ‌ন্দোলন কর্মসূ‌চি ঘোষণা ক‌রে। সে কর্মসূচি হিসেবেই বৃহস্প‌তিবার জেলা পর্যায়ে ডি‌সি বরাবরে স্মারক‌লি‌পি প্রদান করা হয়। একই দাবি‌তে ১৬ ও ১৭ ন‌ভেম্বর সারা‌দে‌শে বি‌ক্ষোভ কর্মসূ‌চির ডাক দি‌য়ে‌ছে সংগঠন‌টি। এদিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহর ওই বক্তব্যের জেরে তার অপসারণ ও শাস্তির দাবিতে এক সপ্তাহের আল্টিমেটাম দিয়েছে বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশন (বিটিএফ)। দলটি গত সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আল্টিমেটাম দেয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সংগঠনটির তরিকত ফেডারেশনের মুখপাত্র আলহাজ্ব মাওলানা জাকির হোসাইন বলেন, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হীন ও ব্যক্তিস্বার্থ হাসিলের জন্য সরকারি আলিয়া মাদরাসা এবং কওমি মাদরাসার আলেম-ওলামাদের মধ্যে বিভেদ ও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বাধানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি দেশের ঐতিহ্যবাহী আলিয়া মাদরাসাসমূহকে ‘আলিয়া-মালিয়া’ বলে চরম কটূক্তি এবং কটাক্ষ করে দেশের লাখ লাখ আলেম-ওলামার প্রতি অবজ্ঞা প্রদর্শন করেছেন। তিনি বলেন, সম্মানিত ওলামায়ে কেরাম ও পবিত্র হজের প্রতি অশালীন ও অসম্মানজনক কটূক্তির জন্য অবিলম্বে শেখ মো. আব্দুল্লাহকে মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদকের পদ থেকে অপসারণ করা হোক এবং তাকে শাস্তির আওতায় আনা হোক। আরআর