সোমবার ০১ জুন ২০২০

১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

আবু হাসান, ক্ষেতলাল (জয়পুরহাট)

নভেম্বর ১২,২০১৯, ০২:১১

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ১০:০৯

ক্ষেতলালে বড় ভাইকে গলাকেটে হত্যা, ছোট ভাই আটক

জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার দাশড়া উত্তরপাড়া গ্রামে খাজামুদ্দিন (৮০) এক বৃদ্ধকে তাঁর ছোট ভাই গলা কেটে হত্যা করেছে। খুনির হাত থেকে খাজামুদ্দীনকে রক্ষা করতে এসে ওই সময় তাঁর স্ত্রী সাহেদা বানু ও গৃহকর্মী মন্তাজ উদ্দিন গুরুতর আহত হন। আহত মন্তাজ এর অবস্থা অবনতি হলে রাতেই জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পড়ে পুলিশ ও গ্রামবাসীর সহযোগিতায় খুনি সাদ্দাম হোসেনকে রাতে আটক করে। সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার সময় ক্ষেতলাল উপজেলার দাশড়া উত্তরপাড়া গ্রামে নির্মম এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা গেছে, ক্ষেতলাল পৌরসভার মালিপাড়া মহল্লার সাদ্দাম হোসেন সোমবার রাত সাড়ে ৯টার সময় দাশড়া উত্তরপাড়া গ্রামে বড় ভাই খাজামুদ্দিনকে দেখতে আসেন। বাড়িতে তখন খাজামুদ্দিন ও তাঁর বৃদ্ধ স্ত্রী, ছেলের বউ এবং কাজের লোক মন্তাজ ছিল। ঘরে ঢুকে হঠাৎ করেই সাদ্দাম তাঁর বড় ভাই খাজামুদ্দিনকে ছুরি দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে আহত করার এক পর্যায় গলা কেটে হত্যা করে। এতে খাজামুদ্দিনের স্ত্রী সাহেদা বানু এবং কাজের লোক মন্তাজ বাধা দিলে তাদেরও এলোপাথারি কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। হত্যার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামবাসী সাদ্দামকে আটক করার চেষ্টা করে। ওই সময় তাদেরও প্রাণ নাশের হুমকি দিলে অবশেষে গ্রামবাসী সাদ্দামের মাথায় আঘাত করে আহত অবস্থায় আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। আহত সাদ্দাম বর্তমান পুলিশ হেফাজতে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান জানান, পারিবারিক কলহের কারণেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে। এ ঘটনায় রাতেই নিহতের ছেলে আলম হোসেন বাদী হয়ে ক্ষেতলাল থানায় হত্যার মামলা দায়ের করেছেন। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আরআর