সোমবার ০১ জুন ২০২০

১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

বেলাল হোসেন

প্রিন্ট সংস্করণ

মার্চ ০৪,২০২০, ০১:৫৯

মার্চ ০৪,২০২০, ০১:৫৯

পাট ও পাটজাত পণ্যের রপ্তানি আয় বাড়ছে

দেশের অর্থনীতিতে কাঁচাপাট ও পাটজাত পণ্যের অবস্থান আগের চেয়ে অনেকটাই সফলতা দেখছে। দেশি ও আন্তর্জাতিক বাজারে পাটের চাহিদাও বাড়ছে। এতে করে পাট ও পাটজাত পণ্যের রপ্তানি আয় বেড়েছে।

বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সূত্রে জানা গেছে, চলতি (২০১৯-২০) অর্থ বছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) এই খাত থেকে রপ্তানি আয় হয়েছে ৫১ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার, যা গত অর্থ বছরের একই সময়ের তুলনায় ২১ দশমিক ৫৫ শতাংশ বেশি এবং লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় প্রায় ২৭ শতাংশ বেশি।

গেলো ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের প্রথম ছয় মাসে পাট ও পাটজাত পণ্যের রপ্তানি আয়ের পরিমাণ ছিলো ৪২ কোটি ১০ লাখ ডলার এবং চলতি অর্থ বছরের প্রথম ছয় মাসে রপ্তানি আয়ের কৌশলগত লক্ষ্যমাত্রা ছিলো ৪০ কোটি ডলার।

ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, আলোচ্য সময়ে কাঁচাপাট রপ্তানি আয় হয়েছে আট কোটি ৮৬ লাখ ডলার, পাটের সুতা ও কুণ্ডলী রপ্তানিতে আয় হয়েছে ৩১ কোটি ৪৬ লাখ ডলার, পাটের বস্তা ও ব্যাগ রপ্তানি হয়েছে পাঁচ কোটি ৮৭ লাখ
ডলার এবং পাটজাত অন্যান্য পণ্য থেকে রপ্তানি আয় হয়েছে ৪ কোটি ৯৬ লাখ ডলার।

পাট মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, পাট বিষয়ে গবেষণা, পাটের উৎপাদন, বহুমুখী পাট পণ্যের উৎপাদন, ব্যবহার ও রপ্তানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করছে পাট খাত সংশ্লিষ্ট সেক্টরগুলো।

এছাড়া পরিবেশবান্ধব পাটজাত পণ্যের অভ্যন্তরীণ ব্যবহার বৃদ্ধিতে কাজ করছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন- ২০১০ ও এ সংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়ন করেছে মন্ত্রণালয়।

এর ফলে ধান, চাল, গম, সার, চিনিসহ মোট ১৯টি পণ্য মোড়কীকরণে পাটের ব্যাগ ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আইন প্রয়োগে কঠোর হওয়ায় দেশের বাজারে পাটের ব্যাগের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এদিকে দেশি ও আন্তর্জাতিক বাজারের চাহিদার কথা মাথায় রেখে পাটচাষিদের উদ্বুদ্ধকরণের পাশাপাশি সম্প্রসারণে কার্যকরী পদক্ষেপ নিয়েছে মন্ত্রণালয়- পাটের ন্যায্যমূল্য নির্ধারণ, পাট ক্রয়-বিক্রয়ে সহজীকরণ।

এছাড়া কাঁচাপাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি এবং পাটজাত পণ্য রপ্তানিকারকদের প্রণোদনার বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে মন্ত্রণালয়।

পাটশিল্পের বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তারা বলেন, বহির্বিশ্বের বাজারে বৈচিত্র্যপূর্ণ পাটপণ্যের চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। ফলে এ খাতে রপ্তানিও বাড়ছে।

মুনাফার হার কমছে উল্লেখ করে তারা জানান, পাটজাত পণ্যের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ছে না কিন্তু উৎপাদন খরচ বেড়েছে।

আমারসংবাদ/এমএআই