শনিবার ০৬ জুন ২০২০

২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

স্পোর্টস ডেস্ক

মার্চ ০২,২০২০, ১২:৫২

মার্চ ০২,২০২০, ১২:৫৩

টেস্টেও ৮ বছর পর ধবলধোলাই ভারত

দীর্ঘ প্রায় ৮ বছর পর সাদা পোশাকে ধবলধোলাই হলো ভারত। সর্বশেষ ২০১১-১২ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ৪ ম্যাচ টেস্ট সিরিজে সবকটিতে হেরেছিল ভারত।

অথচ এই নিউজিল্যান্ড সফরটা ভারতের বেশ সুখকরই হয়েছিল। শুরুতে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিক কিউইদের হোয়াইটওয়াশ করেছিল ভারত।

তবে ওয়ানডে সিরিজ থেকেই ব্যর্থতা শুরু হয়। ৫০ ওভারের ফরম্যাটে ৩-০তে জয়ের পর এবার সফরকারী ভারতকে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করল নিউজিল্যান্ড।

টানা পাঁচটি সিরিজ জিতে নিউজিল্যান্ডে এসেছিল টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দলটি। উপহার পেল নিজেদের টেস্ট ইতিহাসের ১১তম ধবলধোলাই। এই ১১ সিরিজের ১০টিই ভারত আবার খেলেছে প্রতিপক্ষের মাঠে।

ভারতে এসে ভারতকে ধবলধোলাই করার একমাত্র কীর্তি দক্ষিণ আফ্রিকার। ২০০০ সালে ভারতে এসে ভারতকে ২-০-তে হারিয়ে যায় হান্সি ক্রনিয়ের দক্ষিণ আফ্রিকা।

১৯৩২ সালে টেস্ট অভিষেক হওয়া ভারত প্রথম ধবলধোলাই হয় ১৯৫৯ সালে। ইংল্যান্ড সফরে পাঁচটি টেস্টেই হারে দলটি। ইংল্যান্ডে গিয়ে এরপর ১৯৬৭, ১৯৭৪ ও ২০১১ সালে ধবলধোলাই হয় ভারতীয়রা।

ইংলিশদের কাছেই সবচেয়ে বেশি ধবলধোলাই হয়েছে ভারত। দলটিকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩ বার ধবলধোলাই করেছে অস্ট্রেলিয়া। এছাড়া নিউজিল্যান্ড দুবার এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে একবার করে ধবলধোলাই হয়েছে ভারতীয়রা।

টেস্ট ক্রিকেটে ভারতের চেয়ে কম ধবলধোলাই হয়েছে মাত্র দুটি দল—অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়া ৯ বার ও ইংল্যান্ড ৮ বার পেয়েছে এই লজ্জা। সবচেয়ে বেশিবার ধবলধোলাই হওয়ার রেকর্ডে বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে বাংলাদেশ (৩২ বার)। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ বার ধবলধোলাই নিউজিল্যান্ড।

দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ভারত ২৪২ রানে অলআউট হয়। এরপর মোহাম্মদ শামি ও জাসপ্রিত বুমরাহ নিউজিল্যান্ডকে ২৩৫ রানে অলআউট করে ৭ রানের লিড এনে দেন ভারতকে। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে সফরকারীরা।

৯০ রান তুলতেই তারা হারিয়ে বসে ৬ উইকেট। সেখান থেকে সোমবার (২মার্চ) সকালে ব্যাট করতে নেমে ১২৪ রানে অলআউট হয়ে যায়। এই ইনিংসে ট্রেন্ট বোল্ট ৪টি ও টিম সাউদি ৩টি উইকেট নেন।

তাতে নিউজিল্যান্ডের সামনে জয়ের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ১৩২ রান। যা তারা ৩৬ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে তুলে নেয়।  

আমারসংবাদ/এমএআই