সোমবার ২৫ মে ২০২০

১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

স্পোর্টস ডেস্ক

মার্চ ২৫,২০২০, ০৩:১২

মার্চ ২৫,২০২০, ০৩:১২

করোনা মোকাবিলায় বেতনের অর্ধেক দিচ্ছেন ২৭ টাইগার

 

মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। বাড়ছে মৃত্যুও। সারাবিশ্বে এখনও পর্যন্ত প্রায় চার লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে মরনঘাতী ভাইরাসে, প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ১৯ হাজার মানুষ। এরই মধ্যে বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৩৯ আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচে।

ভাইরাসটির সংক্রমণ প্রতিরোধে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনের বড় বড় তারকারা এগিয়ে আসছেন। এরই মধ্যে বড় অঙ্কের আর্থিক অনুদান দিয়েছেন লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এছাড়া নিজেদের সাধ্যমতো নানান সব উদ্যোগ নিচ্ছেন শেন ওয়ার্ন, রবি বোপারারা। এই লড়াইয়ে বসে থাকছেন না বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও।

বুধবার (২৫ মার্চ) বেলা ১২টার দিকে এ তথ্য জানিয়েছে ক্রিকেট বোর্ডের একটি সুত্র।

জানা গেছে, কোভিড-১৯ রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে দেশের ২৭ ক্রিকেটার মিলে তহবিল গঠন করে আর্থিক সহায়তার উদ্যোগ নিয়েছেন।

বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ১৭ ক্রিকেটার ও চুক্তির বাইরে থেকে সম্প্রতি জাতীয় দলে খেলা আরও ১০ ক্রিকেটার তাদের এক মাসের পারিশ্রমিকের অর্ধেক দেবেন এ তহবিলে।

কেন্দ্রীয় চুক্তির বাইরে থেকে যে ক্রিকেটাররা কোনো সিরিজে খেলেন, তিনিও নিজের গ্রেড অনুযায়ী ওই মাসের পারিশ্রমিক পেয়ে থাকেন।

সম্প্রতি জিম্বাবুয়ে সিরিজে চুক্তির বাইরে থেকে খেলা ক্রিকেটাররা যেমন মাসিক বেতন পাবেন। চুক্তিতে না থাকলেও মাশরাফি বিন মুর্তজা শীর্ষ ক্যাটাগরির বেতন।

প্রাথমিক হিসাবে সব মিলিয়ে ৩১ লাখ টাকার মতো আসবে বলে ধারণা করছেন ক্রিকেটাররা। সেই টাকা তারা সরকারকে বা কোনো প্রতিষ্ঠানকে দেবেন, এখনও ঠিক করেননি। সবচেয়ে উপযুক্ত কোথায় হয়, সেটি ভেবে দেখছেন তারা।

তহবিল গঠনের মূল উদ্যোক্তাদের একজন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, হয়তো খুব বড় অঙ্ক নয়, তবু নিজেদের জায়গা থেকে করার চেষ্টা করছি আমরা।

তিনি বলেন, সবাই যদি এভাবে যার যার জায়গা থেকে চেষ্টা করি, যত ক্ষুদ্রই হোক বা বড়, সবাই যদি একসঙ্গে লড়াইয়ে নামি, তা হলে করোনাভাইরাসকে হারানো অবশ্যই সম্ভব।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ বিষয়টি জানিয়ে এক বিষদ বার্তা দিয়েছেন জাতীয় দলের উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহীম। যেখানে তিনি সকলকে আহ্বান জানিয়েছেন নিজ নিজ জায়গা থেকে এগিয়ে আসার।

মুশফিক তার পোস্টে লিখেছেন, ‘আসসালামুআলাইকুম। আপনারা সবাই জানেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণে চারদিকে ক্রমেই ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। এই রোগ প্রতিরোধে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে যার যার জায়গা থেকে। সেটির অংশ হিসেবে আমরা ক্রিকেটাররা একটা উদ্যোগ নিতে যাচ্ছি, যেটি হয়তো অনুপ্রাণিত করতে পারে আপনাদেরও। আমরা এই

মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে একটা তহবিল গঠন করেছি। এই তহবিল ব্যয় হবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ও সাধারণ মানুষ যাদের গৃহবন্দী থাকা অবস্থায় জীবন চালিয়ে নিতে অনেক কষ্ট হয়।

তহবিলে জমা পড়েছে প্রায় ৩০ লাখ টাকার মতো। কর কেটে থাকবে ২৬ লাখ টাকা। করোনার বিরুদ্ধে জিততে হলে আমাদের এই উদ্যোগ হয়তো যথেষ্ট নয়। কিন্তু যাদের সামর্থ্য আছে সবাই যদি এক সঙ্গে এগিয়ে আসেন কিংবা ১০জনও যদিও এগিয়ে আসেন, এই লড়াইয়ে আমরা অনেক এগিয়ে যাব। হ্যাঁ, এরই মধ্যে করোনা মোকাবিলায় অনেকে এগিয়ে এসেছেন। তাদের অবশ্যই সাধুবাদ জানাই।

কিন্তু বৃহৎ পরিসরে যদি আরও অনেকে এগিয়ে আসে, তাহলে আমরা এই লড়াইয়ে জিততে পারব ইনশাআল্লাহ। সেই সহায়তা হতে পারে ১০০, ৫০০০ কিংবা ১ লাখ টাকা দিয়ে। টাকা দিয়ে না হোক হতে পারে দুস্থ মানুষকে খাবার কিনে দিয়ে। আসুন পুরো দেশকে আমরা একটা পরিবার ভেবে চিন্তা করি এবং এই বিপদে সবাই সবাইকে সহায়তা করি। আল্লাহ আমাদের নিশ্চয়ই রক্ষা করবেন। ইনশাআল্লাহ।’

প্রাণঘাতী করোনাকে হারাতে প্রতিজ্ঞায় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, ইব্রাহিমোভিচসহ সিরিআ কিংবা লা লিগার ফুটবলাররা আর্থিক সহায়তা করছেন। ক্রিকেটারদের মধ্যে এগিয়ে এসেছেন শহীদ আফ্রিদি। করোনা মোকাবেলায় শ্রীলংকান ক্রিকেট বোর্ডও আর্থিক সহায়তা করছে তাদের সরকারকে।

আমারসংবাদ/জেআই