সোমবার ০১ জুন ২০২০

১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

স্পোর্টস ডেস্ক

মার্চ ৩১,২০২০, ০১:৫৪

মার্চ ৩১,২০২০, ০১:৫৪

২৩ জুলাই হবে টোকিও অলিম্পিক

২০২০ সালের সময়সূচি মেনেই আগামী বছর টোকিও অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার (৩০ মার্চ) অলিম্পিক কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে ২০২১ সালের ২৩ জুলাই হবে টোকিও অলিম্পিকের সূচনা।

করোনা মহামারীর ধাক্কায় অলিম্পিক যে পিছিয়ে যেতে পারে আগেই একথা জানিয়েছিলেন অলিম্পিক কমিটির কর্মকর্তা ডিক পাউন্ড। পরে তা স্থগিত করে দেয়া হয়।

অবশেষে জানিয়ে দেয়া হল প্রতিযোগিতা পিছিয়ে যাচ্ছে এক বছর।

আধুনিক অলিম্পিকের ১২৪ বছরের ইতিহাসে প্রথমবার এক বছরের জন্য পিছিয়ে দিতে হয়েছে টুর্নামেন্ট। ২৪ জুলাই থেকে শুরু হবে খেলা। চলবে ৯ আগস্ট পর্যন্ত।

এরপর শুরু হবে প্যারালিম্পিক। চলবে ২৫ আগস্ট থেকে ৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

গত সপ্তাহে টোকিও অলিম্পিক পিছিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছিল‌ ভারতীয় অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন।

কোভিড-১৯-এর সংক্রমণ যেভাবে গোটা বিশ্বে ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে তাতে কেউই নিজেদের অন্যত্র যাওয়ার বিষয়ে নিরাপদ মনে করছিলেন না। তাছাড়া সকলকেই থাকতে হচ্ছে গৃহবন্দি হয়ে।

প্রায় গোটা বিশ্ব এখন লকডাউনের পরিস্থিতিতে রয়েছে। এই অবস্থায় অ্যাথলিটদের ট্রেনিংও সঠিকভাবে করা সম্ভব হচ্ছে না। অনেক দেশই অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়ার দাবি তুলেছিল।

কিন্তু জুলাইতে হওয়ায় আরও একটু সময় নিতে চাইছিল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ও আয়োজক দেশ জাপান। কিন্তু ক্রমশ চাপ বাড়তে থাকে তাদের উপর।

শেষ পর্যন্ত আলোচনায় বসেন আইওসি ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। তখনই স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

প্রায় ৮০ জন ভারতীয় অ্যাথলিট সাতটি খেলায় টোকিও অলিম্পিক্সের যোগ্যতা অর্জন করেছেন। তার মধ্যে রয়েছে অ্যাথলেটিক্স, আর্চারি, বক্সিং, একুয়েস্ট্রিয়ান, হকি, শুটিং ও কুস্তি।

ব্যাডমিন্টন ও ভারোত্তলনের মতো খেলাগুলোর যোগ্যতা নির্ণায়ক পর্ব এখনও শেষ হয়নি। যা হয়ে গেলে এই প্রতিযোগীর সংখ্যা ১২০ ছাড়িয়ে যেতে পারে।

আমারসংবাদ/এআই