শিরোনাম

ভুয়া হোমিও চিকিৎসক: চোখ হারালো ছোট্ট শিশু

নিজস্ব প্রতিবেদক   |  ১১:১৫, জুলাই ১৭, ২০১৯

রাজবাড়ী সদর উপজেলার রামকান্তপুর তালুকদার পাড়া গ্রামের কৃষি শ্রমিক রফিক সরদারের মেয়ে সোনিয়া। জন্মের ৭ মাস বয়স থেকেই তার ডান চোখের কর্নিয়ায় সাদা দাগ লক্ষ্য করেন হতদরিদ্র বাবা-মা।

এরপরেই স্বল্প খরচে চিকিৎসার জন্য শরণাপন্ন হন মাসুদ মাহবুব (৪০) নামের এক ভুয়া হোমিও চিকিৎসকের।

কিন্তু বর্তমানে অপচিকিৎসায় শিশু সোনিয়ার ডান চোখটি চিরতরে নষ্ট হয়ে গেছে।

জানা যায়, ছোটো একটি বলের মতো মাংসপিণ্ড বের হয়ে ঝুলছে তার চোখের বাইরে। বর্তমানে সীমাহীন যন্ত্রণায় সময় পার করছে শিশুটি।

ভুয়া চিকিৎসক মাসুদ মাহবুব (৪০) রাজবাড়ী শহরের পাবলিক হেলথ এলাকার একজন স্টুডিও দোকানি।

পরে এই ঘটনায় শিশুর দাদা বাদী হয়ে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত মাসুদ মাহবুবকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

এদিকে, শিশু সোনিয়াকে ঢাকার ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতালে ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিত্সা করানো হচ্ছে।

ডাক্তারদের অভিমত, কিছুদিনের মধ্যে অপারেশন করে সোনিয়ার নষ্ট চোখটি ফেলে দিতে হবে। তা না হলে দুটি চোখই নষ্ট হয়ে যাবে তার।

ভুয়া হোমিও ডাক্তার প্রসঙ্গে রাজবাড়ী থানার ওসি স্বজন কুমার মজুমদার জানান, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। অপচিকিত্সায় শিশুটির চোখ চিরতরে নষ্ট হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে শিশুটির দাদার দাখিলকৃত এজাহারটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করে মাসুদ মাহবুবকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জেডআই

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত