শিরোনাম

সম্রাটের রিমান্ড শুনানি ১৫ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১১:৫৩, অক্টোবর ০৯, ২০১৯

বহুল আলোচিত-সমালোচিত যুবলীগ নেতা ও ‘ক্যাসিনো জুয়ার সম্রাট’ ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাট শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকার কারণে আদালতে আজ নেয়া হয়নি তাকে। অপরদিকে মাদক মামলায় যুবলীগ নেতা আরমানকে আদালতে নেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, শারীরিকভাবে অসুস্থ হওয়ায় তাকে আদালতে নেয়া যাচ্ছে না। ফলে নির্ধারিত আদেশ পিছিয়ে ১৫ তারিখ ধার্য করা হয়েছে।

শরাফত জামান আনসারীর আদালতে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আদালত এ সময় সুস্থতা সাপেক্ষে সম্রাটকে রিমান্ড ও শুনানি আর মাদক মামলায় আরমানকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেয়।

এর আগে, গত ৫ অক্টোবর গভীর রাতে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানার আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামে অভিযান চালায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। ওই গ্রামের জামায়াত নেতা মনির চৌধুরীর বাড়ি থেকে সম্রাট ও আরমানকে আটক করা হয়। পরে তাদের সঙ্গে নিয়ে ৬ অক্টোবর দিনভর রাজধানীতে সম্রাট ও আরমানের বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব।

মদ্যপ থাকায় আটকের সময়ই আরমানকে ছয়মাসের কারাদণ্ড দেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর কাকরাইলের কার্যালয়ে বন্যপ্রাণীর চামড়া সংরক্ষণের দায়ে সম্রাটকেও একই মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়। এরপর সম্রাটকে কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। আর আরমানের জায়গা হয় কুমিল্লা কারাগারে।

এ অবস্থায় সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রমনা মডেল থানায় র‌্যাব-১ এর ডিএডি আব্দুল খালেক বাদী হয়ে সম্রাটের নামে অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দুইটি মামলা করেন। এর মধ্যে যুবলীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানকেও মাদক মামলায় আসামি করা হয়েছে।

সর্বশেষ সোমবার রাতে তাকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয় সম্রাটকে। পরে সেখান থেকে তাকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। তার চিকিৎসায় ৭ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। তবে প্রাথমিকভাবে কয়েকটি পরীক্ষার রিপোর্ট স্বাভাবিক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

জেডআই

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত