শিরোনাম

চাঁদে হাঁটছেন ‘মহাকাশচারী’, হঠাৎ এলো অটোরিক্সা! (ভিডিও)

আমার সংবাদ ডেস্ক  |  ১৯:৩৮, সেপ্টেম্বর ০২, ২০১৯

চাঁদে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারতের চন্দ্রযান-২। কিন্তু তার আগেই চাঁদের মাটিতে নেমে পড়লেন বাদল নানজুনদাস্বামী। চমকে গেলেন নাকি? চমকানোই স্বাভাবিক।

ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যাক্তি স্পেস স্যুট পরে চাঁদের মাটিতে হাঁটছেন। তবে কিছুক্ষণ পরও দেখা যায় তার পাশ দিয়েই একটি অটোরিক্সা চলে যেতে! হ্যাঁ সত্যি! তবে এটি চাঁদের দৃশ্য নয়, ভারতের বেঙ্গালুরুর এক রাস্তার ছবি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার

বাদল নানজুনদাস্বামী নামে এক ব্যক্তির ফেসবুকে আজ সোমবার সকালে এক মিনিটের একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। যা মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে।

ভিডিওতে প্রথমে দেখা যাচ্ছে, মহাকাশচারীদের মতো স্পেস স্যুট পরে এক ব্যক্তি অসমান জমির ওপর হেঁটে চলেছেন। উপর থেকে ধরা হয়েছে ক্যামেরা। প্রথম কয়েক সেকেন্ড দেখলে মনে হবে সত্যিই চাঁদের উপর হেঁটে বেড়াচ্ছেন কেউ। অভিকর্ষ বল কম থাকলে যেভাবে হাঁটতে হয় সেভাবেই হাঁটছেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তারপরেই ভুল ভাঙবে।

দেখা যাচ্ছে, ওই ব্যক্তির গায়ে গাড়ির লাল ইন্ডিকেটরের আলো পড়ছে। তখনই প্রাথমিক সন্দেহটা হবে। তারপরেই দেখা যাচ্ছে, পাশ দিয়ে বেরিয়ে গেল একটি অটোরিক্সা, গাড়ি। ক্যামেরার অ্যাঙ্গেল ঘুরতেই দেখা গেল গর্তে ভরা একটি রাস্তার উপর দিয়ে হাঁটছেন ওই ব্যক্তি। গর্ত বাঁচিয়ে পাশ দিয়ে চলেছে যানবাহন।

আসলে বাদল নানজুনদাস্বামী অভিনব এই পদ্ধতিতে বেঙ্গালুরু প্রশাসনকে দেখাতে চেয়েছেন, শহরের রাস্তার কী হাল। শহরের নানা জায়গায় এমন গর্ত তৈরি হয়েছে, মনে হবে যেন কোনও এবড়ো খেবড়ো গ্রহের ভূমি।

বাদল তাঁর পোস্টে লিখেছেন ‘হ্যালো বিবিএমপি কমিশনার’। বিবিএমপি হল ব্রুহাট বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকা, শহরে রাস্তা ঘাটের দায়িত্বে আছে। তাদেরকেই চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে চেয়েছেন শহরের রাস্তার অবস্থা।

সোমবার সকালে পোষ্ট করা এই ভিডিও ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। প্রায় প্রত্যেকেই প্রশংসা করেছেন বাদলের এই উদ্যোগের। যেভাবে তিনি শহরের রাস্তার হাল তুলে ধরেছেন তা সত্যিই অভিনব।

আরআর

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত