শিরোনাম

উল্টা-পাল্টা কাজ করছে তারা : ড. কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক  |  ১৬:৩০, আগস্ট ২৪, ২০১৯

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, যারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম ব্যবহার করে উল্টা-পাল্টা কাজ করছে তারা কিন্তু মহা অপরাধ করছে। বঙ্গবন্ধু কখনই চাইতেন না এদেশে স্বৈরশাসন কায়েম হোক। এদেশের মানুষ সবসময় বঙ্গবন্ধুকে মনে রাখবে।

শনিবার (২৪ আগস্ট) জাতীয় প্রেসক্লাবের ২য় তলায় তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে (ভিআইপি লাউঞ্জ) জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গণফোরামের উদ্যোগে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া, নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ, সভাপতি পরিষদ সদস্য মোকাব্বির খান, অ্যাডভোকেট মহসিন রশীদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশতাক আহম্মেদ ও মেজর (অব.) আমিন আহমেদ আফসারী, মাহমুদুল্লাহ মধু প্রমুখ।

ড. কামাল বলেন, যারা লুটপাট করে, যেনতেনভাবে ক্ষমতা দখল করে তারা কিন্তু দেশের মালিক নয়। জনগণই দেশের মালিক। নিরাশ হবার কিছু নেই। এর চেয়ে ভয়াবহ অবস্থা বঙ্গবন্ধু দেখেছিলেন এবং জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। জনগণের বিজয় ছিনিয়ে এনেছিলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কখনও জনগণের অধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেলতেন না। আর জনগণ যে হবে সব ক্ষমতার মালিক তিনি তা শিখিয়ে গেছেন। এবং জনগণকেই এদেশের মালিকানা সংবিধানের মাধ্যমে জনগণের হাতে দিয়ে গেছেন। তাই বঙ্গবন্ধু সব সময় অমর হয়ে থাকবে। বাংলাদেশ যতদিন থাকবে তিনি অমরই হয়ে থাকবেন।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যেখানে ভোট হয়নি, ভোট দিতে যেতে পারিনি সেখানে আমাদেরকে মোবারকবাদও দিয়ে দেয়া হয়। বলা হল, ভোট দিয়ে বিজয়ী করার কারণে এ মোবারকবাদ। অথচ আমি কেন কেউই ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেনি।

ড. কামাল বলেন, বঙ্গবন্ধু কারো একক পিতা নন, তিনি জাতির পিতা। বঙ্গবন্ধু কোনো একক দলের নয়, তিনি সবার। এদেশে এখন বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করে তার আদর্শে উল্টো কাজ হচ্ছে। তিনি যে আদর্শ আমাদের মধ্যে রেখে গেছেন তার বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বৈরতন্ত্র নয়, গণতন্ত্রের জন্য জীবন দিয়ে গেছেন। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করাই ছিল তার মূল লক্ষ্য। তিনিই জনগণকে দেশের ক্ষমতার মালিক বানিয়ে রেখে গেছেন।

এমএআই

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত