শিরোনাম

আফ্রিকায় হত্যাকাণ্ডের শিকার ৪৫২ বাংলাদেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  |  ১৯:৪৭, অক্টোবর ০২, ২০১৯

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশের দূতাবাস-এর তথ্য মতে, গত চার বছরে চার শতাধিক বাংলাদেশিকে হত্যা করা হয়েছে। ব্যক্তিগত বিবাদের জের থেকে শুরু করে ব্যবসায়িক সম্পর্ক, টাকা নিয়ে বিরোধ, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কারণেও এই হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে জানান আফ্রিকায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাব্বির আহমেদ চৌধুরী।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, নিহতদের অনেকের পরিবার গোপন করে থাকে, তাই সঠিক সংখ্যা বলা মুশকিল। তবে সঠিক সংখ্যাটি আরো বেশি হবে বলে তিনি জানান।

চলতি বছরেই ইতোমধ্যে ৮৮ লাশ বাংলাদেশে পাঠানো হয়েছে। জানুয়ারি ২০১৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত মোট ৪৫২ জন নিহত হয়েছে।

তিনি আরো জানান, কারো সঙ্গে চলমান বিবাদ মেটাতে বেশিরভাগ বাংলাদেশি ‘স্থানীয় গুন্ডা ভাড়া’ করেন। যাদের মরদেহ দেশে পাঠানো হয়েছে তাদের প্রায় ৯৫ শতাংশই গুলিতে নিহত হয়েছে।

খলিল মিয়া নামে একজন অভিবাসী বাংলাদেশি জানান, স্থানীয় বাসিন্দারা বাংলাদেশিদের প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করেন। যদিও আমরা তাদের চাকরি নিচ্ছি না, তার পরেও তারা আমাদের বন্দুক নিয়ে হামলা করে।

জোহানেসবার্গে প্রবাসী বাংলাদেশিদের নেতা আব্দুল আওয়াল তানসেন জানান, অনেক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। কিন্তু বিচার চাওয়া তো দূরের কথা, আমরা সেগুলো কাউকে জানাইনি। কারণ, আমাদের অনেকেই এখানে অবৈধভাবে বাস করছেন।

কয়েক বছর আগে থেকে আফ্রিকায় বাংলাদেশিদের অভিবাসন শুরু হয়। সরকারি হিসেব মতে প্রায় তিন লাখ অভিবাসী আফ্রিকায় বাস করছেন। তাদের বেশিরভাগই ছোটখাট ব্যবসা করে আয় রোজগার করছেন।

ডন অবলম্বনে সারোয়ার আলম

এসএ/আরআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত