শিরোনাম
দৈনিক আমার সংবাদে ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশের পর

গুনে গুনে ঘুষ নেয়া সেই সাব রেজিস্ট্রার বরখাস্ত

জহুরুল ইসলাম, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ)  |  ১৯:৫৫, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

দৈনিক আমার সংবাদে ধারাবাহিক ভাবে সংবাদ প্রকাশের পর ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেয়ার ভিডিওচিত্র ভাইরালসহ নানা অভিযোগে অবশেষে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের সেই উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

সেই সাথে সুব্রত কুমার দাসের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার নির্দেশ দিয়েছে আইনমন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে তার তিন সহযোগীকেও সাসপেন্ড করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মোঃ মঞ্জুরুল। বরখাস্ত হওয়া অন্য কর্মচারীরা হলেন- সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসের ঘুষ বাণিজ্যের সহযোগী ওই অফিসের মহরা আব্দুস সালাম, নকলনবিশ সুমন আহম্মেদ ও দৈনিক মজুরি চুক্তিতে অফিস সহায়ক আনিছুর রহমান।

এর আগে, ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেয়ার ভিডিওচিত্র ভাইরাল, ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগ এবং গণমাধ্যমে এসবের সংবাদ দেখে জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম গত ২৮ আগস্ট এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেন।

আট কর্মদিবসের তদন্তে জমিদাতা ও দলিল গ্রহীতাদের সমস্যায় ফেলে অবাধে ঘুষ-বাণিজ্য, দালাল চক্রের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধিতে সহায়তা, জমির প্রকৃত মূল্য কম দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি, অসাধু দলিল লেখকের সঙ্গে ঘুষের টাকা ভাগবাটোয়ারা, ঊর্ধ্বতনদের অনুমতি ছাড়া দলিল সম্পাদন বন্ধ রেখে সরকারি অফিসে সংবাদ সম্মেলন ও সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ চারজনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণে রোববার ঢাকার রাজধানীতে ইন্সপেক্টর জেনারেল অব রেজিস্ট্রার (আইজিআর) কার্যালয়ে প্রতিবেদন দাখিল করেন জেলা রেজিস্ট্রার।

তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় আইজিআর খান মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান শাহজাদপুরের আলোচিত সেই উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার সব্রত কুমার দাসকে সাময়িক বরখাস্ত এবং তার তিন সহযোগীকে বরখাস্ত এবং পৃথক সৃপারিশসহ সোমবার এটি মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। সেই চিঠির প্রেক্ষিতে আজ সুব্রত কুমার দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করার নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, শাহজাদপুর উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রারসহ তার কার্যালয়ের কতিপয় কর্মচারীর ঘুষ বাণিজ্য ও ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেবার একটি ভিডিও চিত্র গত ১৭ আগষ্ট ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই ২২ আগস্ট দৈনিক আমার সংবাদে সাবরেজিস্ট্রারের ঘুষ নেয়ার সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হয়। আলোচনায় উঠে আসেন সাব রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ তার অফিসের দুর্নীতিবাজরা।

এমআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত