শিরোনাম

গরু চোর নিহতের ঘটনায় আ.লীগ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

জামাল মিয়া, ভৈরব  |  ২১:৪০, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

ভৈরব উপজেলার শিমুলকান্দি ইউনিয়নের মধ্যেরচর গ্রামের রফিকুল ইসলাম ওরফে রইপ্পা ডাকাত নামে এক কুক্ষাত গরু চোর নিহতের ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের ২৭জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

নিহত গরু চোর চক্রের মূল হোতা রফিক ডাকাতের স্ত্রী চায়না বেগমের দায়ের করা এ মামলায় এজাহার ভুক্ত আসাদ মিয়া নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে প্রেরণ করে পুলিশ। এঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে শিমুলকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল দশটায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভৈরব দূর্জয় মোড়ে ঘন্টাব্যাপি এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, ভৈরব পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক আহমেদ সৌরভ, ভৈরব উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ মিজানুর রহমান কবীর, শিমুলকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বাবুল মিয়া, আগানগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সেলিম আহমেদ, জাতীয় পার্টি ভৈরব উপজেলা শাখার সভাপতি আবদুস সালাম প্রমূখ।

মানববন্ধনে শিমুলকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আজিজসহ অন্যান্য আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি তুলে ধরেন আন্দোলনকারিরা।

বক্তারা আরো বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ গরু চুরি, মাদক ব্যবসা ও ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধ মূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকা রফিকের মৃত্যুতে শান্তি ফিরে আসে। কিন্তু উদ্দেশ্যমূলক ভাবে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। তাই অনতিবিলম্বে এই মিথ্যা মামলা প্রতাহারের দাবি জানান তারা। অন্যথায় কঠিনতর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে বলেও হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন আন্দোলনকারিরা। এসময় এ মহাসড়কে প্রায় আধঘন্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে।

উল্লেখ্য, গত ২০আগষ্ট ভৈরবের শিমুলকান্দি ইউনিয়নের মধ্যেরচর-জামালপুরের মধ্যস্ত সড়কে গরু চোর চক্রের মূল হোতা রফিক ডাকাতকে দিনে-দুপুরে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

এমআর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত