শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০

৮ কার্তিক ১৪২৭

ই-পেপার

রফিকুল ইসলাম

প্রিন্ট সংস্করণ

অক্টোবর ১৬,২০২০, ১২:৫৩

অক্টোবর ১৬,২০২০, ১২:৫৩

আশাবাদী আ.লীগ-শঙ্কায় বিএনপি

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থী-সমর্থকদের অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের মধ্যদিয়ে গতকাল আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয়েছে ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনে উপনির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা। তাই শেষ দিনেও সাধারণ ভোটারের দ্বারে দ্বারে ভোট চেয়েছেন রাজনৈতিক দলগুলোর প্রার্থী ও সমর্থকরা।

তবে ভোট প্রচারণার শেষ দিনেও সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেছেন, সন্ত্রাসীদের দিয়ে পোলিং এজেন্ট ও দলীয় নেতাকর্মীদের হুমকি দেয়া হচ্ছে। কেউ যেনো ঘরে থাকতে না পারে সেজন্য ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। তারা চায় না সুষ্ঠু নির্বাচন হোক। তারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আসন দখল করতে চায়।

এদিকে স্থানীয় কিংবা জাতীয় নির্বাচনের মতোই ঢাকা-৫ আসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে চায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এজন্য দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা শেষ দিনেও বিভিন্ন স্থানে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়েছেন। একই সাথে সাধারণ ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে নিয়ে আসতে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন দলটির দায়িত্বশীল নেতারা।  

সরেজমিন দেখা যায়, ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার শেষ দিনেও সরগরম ছিলো ডেমরা-যাত্রাবাড়ী ও আংশিক কদমতলী থানাধীন পাড়া-মহল্লা। শেষ মুহূর্তে অলিগলিতে উচ্চসুরে বেজেছে নৌকা প্রতীক ও প্রার্থীকে নিয়ে রচিত নানা গান-বাজনা।

এদিনও শেষবারের মতো শেখ হাসিনার মনোনীত নৌকার প্রতীকের পক্ষে ভোট ও দোয়া চেয়েছেন যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, মৎসজীবী লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দায়িত্বশীল নেতারা।

একই সাথে দল ও সহযোগী সংগঠনের ওয়ার্ড, থানা ও মহানগরের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা বর্তমান সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে নির্বাচনি লিফলেট বিতরণ, মিছিল, গণসংযোগ ও পথসভা করেছেন। এদিকে উপনির্বাচনে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা থাকলেও শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত সাধারণ ভোটারের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও সমর্থকরা। তারাও প্রচার-প্রচারণার শেষ দিনে ডেমরা, যাত্রাবাড়ীসহ নির্বাচনি এলাকার বিভিন্ন স্থানে ছুটেছেন।

যদিও সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেছেন, সন্ত্রাসীদের দিয়ে আমার পোলিং এজেন্ট ও দলীয় নেতাকর্মীদের হুমকি দেয়া হচ্ছে। তারা যেনো বাড়ি-ঘরে থাকতে না পারে সেজন্য ভয়-ভীতি দেখাচ্ছেন আওয়ামী সন্ত্রাসীরা।

গত রাতেও কদমতলী থানা এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে এই সন্ত্রাসী বাহিনী নানা অপকর্ম করছে। এ ঘটনায় বুঝা যায় তারা সুষ্ঠু নির্বাচন চায় না। তারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আসন দখল করতে চায়।

এসময় সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে নির্বাচন কমিশনকে আহ্বান জানান তিনি। গতকাল দুপুরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে নিজ নির্বাচনি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সুষ্ঠু নির্বাচনের এ আহ্বান জানান সালাহউদ্দিন আহমেদ।

এছাড়া ভোটার, পোলিং এজেন্ট, প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট ও প্রার্থী হিসেবে সালাহউদ্দিন আহমেদ তার নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য কমিশনের কাছে দাবিও জানান। এ বিষয়ে একাধিকার নির্বাচন কমিশন কার্যালয় ও রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে অভিযোগ দেয়া হয়েছে বলে জানান বিএনপির এ প্রার্থী।

এদিকে ঢাকা-৫ আসনের সাথে আগামীকাল অনুষ্ঠিত হবে নওগাঁ-৬ উপনির্বাচন। তাই নির্বাচন ঘিরে শেষ মুহূর্তে সরগরম হয়ে উঠেছে স্থানীয় রাজনীতি। ভোটের মাঠে জয়লাভের মধ্যদিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হেলাল এবং তার সমর্থকরা। এজন্য গতকাল শেষ দিন পর্যন্ত ভোটারের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন তিনি।

অন্যদিকে ভোটের মাঠে জয়লাভের মধ্যদিয়ে হারানো ক্ষমতা ফিরে পেতে চান বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শেখ মো. রেজাউল ইসলাম এবং তার সমর্থকরা। যদিও তিনি সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। মূলত বিএনপির প্রার্থী ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা বলছেন, ভোটকে সামনে রেখে বিরোধী প্রার্থীর সমর্থকরা সাধারণ ভোটার, দলীয় পোলিং এজেন্ট, প্রধান নির্বাচনি এজেন্টসহ নেতাকর্মীদের মধ্যে ভীতিকর পরিবেশ তৈরি করতে নানা রকম ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন।

এদিকে সারা দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় নওগাঁর উন্নয়নে সাধারণ ভোটাররা নৌকায় ভোট দেবেন বলে মনে করছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। যদিও করোনাকালে উপনির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণ নিয়ে কিছুটা শঙ্কা প্রকাশ করছেন উভয় দলের প্রার্থী ও সমর্থকরা।

মূলত এই প্রথম উত্তরবঙ্গে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হেলাল বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) একটি আধুনিক পদ্ধতি। অনেকে এর সঠিক ব্যবহার জানেন না। তবে আমি আশা করি ১৭ অক্টোবর দিনব্যাপী উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোটাররা ভোট দিয়ে আমাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবেন।

তথ্য মতে, করোনাকালে ঢাকা-৫ এবং নওগাঁ-৬ আসনে ভোটগ্রহণ ও ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ সকল দলের দলীয় প্রতীকের প্রার্থীরা। এ জন্য শুধু পথসভা নয়, নির্বাচনি এলাকার প্রতিটি ভোটারকে ভোটকেন্দ্রে নিয়ে আসতে কাজ করছেন দলগুলোর বিভিন্ন ইউনিটের দায়িত্বশীল নেতাকর্মী ও সমর্থকরা।

ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ ভোটাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে আসুন। যাকে খুশি তাকে ভোট দিন। জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আমরা আপনাদের সাথে আছি ও থাকবো ইনশাআল্লাহ।  

উল্লেখ্য, বার্ধক্যজনিত কারণে গত ৬ মে মৃত্যুবরণ করেন ঢাকা-৫ আসনের প্রয়াত এমপি হাবিবুর রহমান মোল্লা এবং করোনায় সংক্রমিত হয়ে গত ২৭ জুলাই মৃত্যুবরণ করেন নওগাঁ-৬ আসনে আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য প্রয়াত ইসরাফিল আলম।

তাদের মৃত্যুতে আসন দুটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এরপর এ দুই আসনের ভোট গ্রহণের তারিখ ঘোষণা করেন তারা। নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী আগামীকাল এই আসনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণের জন্য ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তবে এই দুই আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। এর মধ্যে এই প্রথম ইভিএমে ভোটগ্রহণ হবে নওগাঁ-৬ আসনে।

আমারসংবাদ/এসটিএম