মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

৬ ফাল্গুন ১৪২৬

ই-পেপার

নড়াইল প্রতিনিধি

ফেব্রুয়ারি ১৩,২০২০, ০২:৩২

ফেব্রুয়ারি ১৩,২০২০, ০৮:৩২

চ্যাম্পিয়ন অভিষেককে মিষ্টি খাওয়ালেন মাশরাফির বাবা-মা

 

যুব বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটার অভিষেক দাসকে বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ভালোবাসায় সিক্ত করে বরণ করে নিল নড়াইলবাসী। এর আগে যশোর বিমানবন্দরে থেকে মোটরশোভাযাত্রা সহকারে অভিষেককে জন্মভূমি নড়াইলে নিয়ে আসা হয়।

নড়াইলের কৃতি সন্তান অভিষেক নিজ জন্মভূমি পৌঁছেই প্রথমে ছুটে যান ক্রিকেট নায়ক নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত মাশরাফি বিন মর্তুজার বাড়িতে। তখন মাশরাফির মা হামিদা মর্তুজা বলাকা অভিষেককে দৌড়ে এসে বুকে জড়িয়ে নেন। এ সময় অভিষেককে মিষ্টি খাইয়ে দেন মাশরাফির মা হামিদা বেগম ও বাবা গোলাম মর্তুজা।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে যশোর বিমান বন্দরে এসে পৌঁছান অভিষেক দাস অরন্য। বিমানবন্দরে বাবা অসিত দাস, মা অরুনা দাসসহ পরিবারের লোকজন অভিষেককে ফুলের মালা পরিয়ে বরণ করে নেন। তারপর গাড়িতে করে যাত্রা নড়াইলের উদ্যেশ্যে।

তাকে বরণ করতে নড়াইল শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে নড়াইল-যশোর সড়কের গাবতলা এলাকায় উপস্থিত হয় শতাধিক মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাস ও প্রাইভেটকার নিয়ে আত্মীয় স্বজন-বন্ধু বান্ধবসহ অসংখ্য অভিষেকপ্রেমী ক্রিকেটভক্তরা। ওই স্থান থেকে তাকে বরণ করে বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা সহকারে তিনটার দিকে দিকে নড়াইল শহরে প্রবেশ করে।

শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জাতীয় ক্রিকেটে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার বাড়িতে যায়। এ সময় মাশরাফির মা হামিদা বেগম বলাকা ও বাবা গোলাম মর্তুজা স্বপনের সাথে সাক্ষাৎ করেন অভিষেক। তারা অভিষেককে মিষ্টি খাইয়ে দেন এবং অভিষেকও তাদের মিষ্টি খাইয়ে দেন। এসময় মাশরাফির মা-বাবা অভিষেকসহ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের জন্য দোয়া কামনা করেন ও শুভেচ্ছা জানান।

পরে শোভাযাত্রাটি অভিষেককে নিয়ে তার বাড়ি শহরের বাধাঁঘাট এলাকায় যায় এবং ওই স্থানে স্থানীয়ভাবে সংবর্ধনা দেয়া হয়।

সংবর্ধনায় অভিষেক বলেন, আপনারা আমার জন্য আশির্বাদ করবেন, আমি যেন এর থেকে ভাল কিছু অর্জন করতে পারি। বাংলাদেশকে ভাল কিছু উপহার দিতে পারি, সে চেষ্টা আমি করব।

এ সময় মাশরাফি বিন মর্তুজার বাবা গোলাম মোর্তজা স্বপন, অভিষেক দাসের বাবা অসিত দাস, আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌরসভার কাউন্সিলর শরফুল আলম লিটু, ব্যাবসায়ি গিয়াসউদ্দিন খান ডালু, ক্রিকেট কোচ সৈয়দ মঞ্জুর তৌহিদ তুহিন, আওয়ামী লীগ নেতা হাফিজ খান মিলন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি তারিকুল ইসলাম উজ্জ্বল, সাধারণ সম্পাদক এস এম পলাশ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চল শাহারিয়ার মিম, সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বাংলাদেশ ওয়ান ডে ক্রিকেটদলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা যুব বিশ্বকাপের সাফল্যে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ফেসবুকে মাশরাফি লিখেছেন, ‘অভিনন্দন বাংলাদেশ। বিশেষ করে আমার শহরের ছেলে অভিষেক দাস। এছাড়া রাকিবুল, শরিফুল, ইমন এবং দলের সব খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ-সবাইকে অভিনন্দন। তুমি দুর্দান্ত আকবর আলি। শুধু আবেগটা ধরে রাখতে পারলেই হবে। কী অসাধারণ সাফল্য। বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষের জন্য অনিন্দ্য সুন্দর মূহুর্ত।’

প্রসঙ্গত, চলতি মাসের নয় তারিখে ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপ ছিনিয়ে আনে লাল সবুজের দল। ওই দিন বাংলাদেশের হয়ে ভারতের তিনটি ইউকেট তুলে নেয় নড়াইলের কৃতি সন্তান অভিষেক দাস অরণ্য।

আমারসংবাদ/জেআই