বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

৯ আশ্বিন ১৪২৭

ই-পেপার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

ফেব্রুয়ারি ২২,২০২০, ০৩:৪৩

ফেব্রুয়ারি ২২,২০২০, ০৩:৪৩

মামলা করায় প্রাণের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে সেনা সদস্য

টাঙ্গাইলের কালিহাতী পৌরসভার হরিপুর গ্রামের অবসর প্রাপ্ত সেনাসদস্য হালিম তালুকদারের বাড়ি ভাংচুর, হামলা ও লুটপাট করেছে প্রতিপক্ষ। একই গ্রামের শুকুর মাহমুদ, ছনি তালুকদার, রনি তালুকদার, মালেক তালুকদারসহ ১৫/২০ জন মিলে এ হামলা চালায়।

এঘটনায় অবসব প্রাপ্ত সেনাসদস্য বাদী হয়ে টাঙ্গাইল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কালিহাতী আমলী আদালতে মামলা করে। আদালত মামলাটি পুলিশ ব্যুারো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের দায়িত্ব দেন। মামলা করার পর থেকে হামলাকারীদের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন বাদীর পরিবার।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কালিহাতী পৌরসভার হরিপুর গ্রামের মৃত. আ. কাদেরের ছেলে অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য আ. হালিম তালুকদারের সাথে দীর্ঘদিন যাবত একই গ্রামের শুকুর মাহমুদ, মালেক তালুকদার ও রনি তালুকদারদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল।

সম্প্রতি ওই বিরোধের জের ধরে জমি বাবদ অব: প্রাপ্ত সেনা সদস্যের কাছে ৩ লক্ষ টাকা দাবি করেন। দাবিকৃত টাকা দিতে অস্বীকার করায় তার বসতবাড়ি ভাংচুর, অবসর সেনাসদস্যকে পিটিয়ে আহত, স্ত্রীর শ্লীলতাহানী ও মেয়েকে চরথাপ্পর দিয়ে তার কানের দুল, গলার চেন ছিনিয়ে নেয়। এরপর বাড়ির আসবাবপত্র ভাংচুর করে ঘরে থাকা নগদ ৪৫ হাজার টাকা নিয়ে চলে যায়।

এ বিষয়ে মামলা করলে দেখে নেবে বলে হুমকি দেয়। স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় এসব করায় এলাকাবাসী মুখ খুলতে সাহস পায়নি। এ ঘটনা ও তাদের দ্বারা নির্যাতিত ওই এলাকার ১৫ ব্যক্তি প্রতিকার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরসহ জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেছে।

এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা টাঙ্গাইল পুলিশ ব্যুারো অব ইনভেস্টিগেশনের এসআই হাবিবুর রহমান জানান, মামলাটির তদন্ত চলছে। তদন্তের স্বার্থে এ বিষয়ে আর কিছু বলা যাচ্ছে না।

আমারসংবাদ/কেএস