শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

৯ আশ্বিন ১৪২৭

ই-পেপার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

ফেব্রুয়ারি ২২,২০২০, ০৪:৫৬

ফেব্রুয়ারি ২২,২০২০, ০৪:৫৬

আরো এক যৌনকর্মীর জানাজা

 

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া যৌনপল্লিতে এবার নিলু পারভীন (৪৮) নামে এক যৌনকর্মীর জানাজার নামাজ ও দাফন সম্পন্ন হয়েছ।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টায় দৌলতদিয়া যৌনপল্লি, গোয়ালন্দ ঘাট থানা ও অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের উদ্যোগে এ জানাজার নামাজ হয়।

তার জানাজার নামাজ পড়িয়েছেন গোয়ালন্দ ঘাট থানা জামে মসজিদের ইমাম আবু বক্কার সিদ্দিক। জানাজায় অংশ নেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শরীফ উজ জামান, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মো. আশিকুর রহমান, দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার মো. আব্দুল জলিলসহ স্থানীয়রা।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েন নিলু পারভীন। এরপর যৌনপল্লীতেই তার মৃত্যু হয়।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মো. আশিকুর রহমান জানান, ‘গত ২ ফেব্রুয়ারি প্রথমবারের মতো যৌনকর্মীর মৃত্যুর পর জানাজার নামাজ ও দাফন চালু করেন তিনি। এর আগে মৃত্যুর পর যৌনকর্মীরা মরদেহ জানাজা ছাড়াই মাটিতে পুঁতে ফেলা বা নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হতো। গত ২০ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় বার ও ২২ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় বারের মতো যৌনকর্মীর জানাজা হলো। এই ধারা অব্যাহত থাকবে।’

এর আগে হামিদা বেগম (৬৫), রিনা বাড়িওয়ালীর (৬২) জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। গত ২ ফেব্রুয়ারি হামিদা বেগমের জানাজার মধ্য দিয়ে দৌলতদিয়ার অবহেলিত যৌনকর্মীদের জীবনে নতুন অধ্যায় শুরু হয়। গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আশিকুর রহমান (পিপিএম) হামিদা বেগমের জানাজার আয়োজন করেন। এরপর গত বৃহস্পতিবার এ পল্লীতে রিনা বাড়িওয়ালীর মৃত্যু হলে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

আমারসংবাদ/জেআই