মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০

১৯ শ্রাবণ ১৪২৭

ই-পেপার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জুলাই ২৯,২০২০, ১১:৫২

জুলাই ২৯,২০২০, ১১:৫২

অত্যাধুনিক ৫টি রাফাল যুদ্ধবিমান পেয়েছে ভারত

লাদাখ সীমান্তে চীনের সঙ্গে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই ফ্রান্সের কাছ থেকে ক্রয় করা ৫টি অত্যাধুনিক রাফাল যুদ্ধবিমান ভারতে পৌঁছেছে ।

২০১৬ সালে ইউরোপীয় দেশটির কাছ থেকে ৩৬টি যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি করেছিল নয়া দিল্লি।

তারই অংশ হিসেবে বুধবার (২৯ জুলাই) প্রথম দফার ৫টি রাফাল জেট হরিয়ানার অম্বালায় পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার।

অত্যাধুনিক এ যুদ্ধবিমানগুলো লাদাখে মোতায়েন করা হতে পারে বলে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা ইঙ্গিত দিয়েছে।

ফ্রান্সের দাসো এভিয়েশনের সঙ্গে করা চুক্তি অনুযায়ী আগামী বছরের মধ্যেই ধাপে ধাপে বাকি ৩১টি যুদ্ধবিমানও ভারতে পৌঁছাবে।

নতুন এ যুদ্ধবিমানগুলো মোতায়েনের পর ভারতের বিমান বাহিনীর সক্ষমতা ও মনোবল আরো বাড়বে বলে আশা করছে নয়া দিল্লি।

ভারতের বিমান বাহিনীতে এতদিন যেসব যুদ্ধবিমান ছিল তার বেশিরভাগই সোভিয়েত আমলের।

পুরনো হয়ে যাওয়ায় সেগুলো বদলে নতুন অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান সংযোজনে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তারা কয়েক দশক ধরেই চেষ্টা করছিলেন।

চীনের সঙ্গে সীমান্ত উত্তেজনার মধ্যে ৫টি রাফালে জেট ভারতীয় বিমান বাহিনীর শক্তি বাড়ালেও এখনি এগুলোকে লড়াইয়ে নামিয়ে দেওয়া যাবে না বলে ধারণা বিশ্লেষকদের।

পুরোপুরি মোতায়েনের আগে আরও কিছুটা সময় লাগবে। সরবরাহ চেইন ঠিক করা লাগবে, ভারতের টেকনিক্যাল ও গ্রাউন্ড স্টাফদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে,” বলেছেন অবসরপ্রাপ্ত এয়ার মার্শাল প্রণব কুমার বারবোরা।

অন্তত ১৮টি যুদ্ধবিমান থাকলেই রাফাল স্কোয়াড্রনটি পুরোপুরি কার্যকর হয়ে উঠবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। একটি স্কোয়াড্রনকে পুরোপুরি প্রস্তুত করতে দুই বছর পর্যন্ত সময়ও লাগতে পারে।

বিবিসি জানিয়েছে, দাসোর বানানো ৫টি রাফাল জেট সোমবার ফ্রান্স থেকে রওনা হয়। ভারত পৌছানোর আগে এগুলো সংযুক্ত আরব আমিরাতে স্বল্প সময়ের বিরতিও নেয়।

আমারসংবাদ/এআই