সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

১২ ফাল্গুন ১৪২৬

ই-পেপার

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ১০:১৪

ফেব্রুয়ারি ০৯,২০২০, ০৪:১৪

দুপুরের ঘুম; ভালো না খারাপ?

অনেকেই দুপুরে খাওয়ার পর ঘুমাতে যায়। এই অভ্যাস ভালো না খারাপ? অনেকেই ভাবে দুপুরের ঘুম স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু দুপুরে খাওয়ার পর ঘুমাতে যারা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন, তাদের জন্য সুসংবাদ হলো দুপুরের এই ঘুম স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ভালো।

ভারতীয় সেলেব্রিটি পুষ্টিবিদ রুজুতা দিভেকার এ বিষয়ে জানান, অনেকেই মনে করেন দুপুরের ঘুম মানে অলসতা ও স্থূলত্ব এবং অনেকের আশঙ্কা প্রকাশ করে, এটি রাতের ঘুম নষ্ট করে। তবে প্রত্যেক ধর্ম, সংস্কৃতি ও যোগাসনের ধারণাতেও বিকেলের স্বল্প ঘুমকে সমর্থন করা হয়।

দিভেকারের মতে, ন্যাপিং বা দুপুরের হালকা ঘুম হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং যারা উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন তাদের পক্ষে এটি উপকারী। এটি হরমোনের ভারসাম্য উন্নত করে এবং ডায়াবেটিস, পিসিওডি ও থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে। এটি হজমশক্তি বাড়ায়, অনিদ্রা নিরাময় করে, অসুস্থতা থেকে দ্রুত স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার করতে সহায়তা করে; এমনকি এটি চর্বি হ্রাস করতেও সহায়ক। তবে এসব উপকারিতা পেতে হলে দুপুরে ঘুমানোর সঠিক নিয়ম অনুসরণ করতে হবে।

আসুন জেনে নিই, দুপুরে ঘুমের সঠিক নিয়ম-

ঠিক দুপুরের খাবারের পরে ঘুমাতে যাবেন।

বাম দিকে কাত হওয়া অবস্থাতে শুয়ে থাকুন।

১০ থেকে ৩০ মিনিট ঘুমানো যেতে পারে (খুব অল্প বয়স্ক, খুব বৃদ্ধ, খুব অসুস্থের জন্য প্রায় ৯০ মিনিট)।

ঘুমের আদর্শ সময় হলো- বেলা ২ টা ৩০ মিনিটের মধ্যে।

তবে, আপনি যদি কর্মস্থলে থাকেন তাহলে আপনার পক্ষে দুপুরে বিছানায় শুয়ে থাকা সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে, আপনি আপনার মাথাটি ডেস্কে রেখে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিতে পারেন। অথবা আপনি একটি ইজি চেয়ারে বসে থাকতে পারেন। যদি আপনি এটি না করতে পারেন তবে কোনো জানালার কাছে যান, অনেক দূরে তাকান এবং আপনার মনকে উন্মুক্ত করে দিন।

যা করা উচিত নয়

সন্ধ্যা ৪টা থেকে ৭টার মধ্যে ঘুমানো।

দুপুরে খাওয়ার পর চা, কফি, সিগারেট বা চকোলেট খাওয়া।

দুপুরে খাওয়ার পর স্মার্টফোনে ব্যস্ত হয়ে পড়া।

৩০ মিনিটের বেশি ঘুমানো।

টিভি দেখতে দেখতে ঘুমানো।

তথ্যসূত্র: দ্যা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

আমারসংবাদ/জেডআই