শনিবার ০৪ এপ্রিল ২০২০

২০ চৈত্র ১৪২৬

ই-পেপার

আমার সংবাদ ডেস্ক

মার্চ ১৩,২০২০, ০৬:৩৭

মার্চ ১৩,২০২০, ১১:০৩

কলার জন্য শত শত বানরের দখলে রাস্তা!

প্রায় সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস শুধু মানুষের ক্ষতি করছে না, অবলা প্রাণী বানরের পেটেও লাথি পড়েছ।

একটি মাত্র কলার জন্য রাস্তার মাঝে শত শত বানর লড়াই করছে। সম্প্রতি থাইল্যান্ডের রাস্তায় নজরে এসেছে এমনই এক মর্মান্তিক দৃশ্য। বানরদের কলা নিয়ে এমন মারামারির কারণে স্থানীয়রা যে যেদিকে পেরেছেন ছুটে পালিয়েছেন।

স্থানীয়রা বলছেন, সাধারণত পর্যটকরা এলে এই বানরের দল পেট পুরেই খেতে পায়। রসালো তরমুজ, টমেটো—এটা ওটা জুটেই যায়। তখন থাকে না কোনও ঝামেলা।

কিন্তু করোনার কারণে এখন পর্যটক নেই। ফলে খাবারের রসদে টান পড়েছে এই বানরদের। আর তাই পেটের জ্বালা মেটাতে মাত্র একটা কলার জন্য এভাবে মরণপন লড়াইয়ে নেমেছে শত শত বানর।

থাইল্যান্ডের লোবপুরি সাধারণত সারাবছরই জমজমাট থাকে। বছরজুড়ে আনাগোনা থাকে পর্যটকদের। কিন্তু এবছর করোনার ভয়ে পর্যটক প্রায় আসছেনই না।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, যে দু'পক্ষ বানর কলার ভাগ নিয়ে লড়াইয়ে নেমেছিল তাদের মধ্যে একদল হল শহুরে। আরেক দল থাকে মন্দিরের আশেপাশে।

দুই দলই একে অন্যের চোখের বিষ। মন্দির চত্বরে থাকার সুবাদে সেই পক্ষের বানরদের উদরপূর্তি হয় একটু ভালোভাবেই। উল্টোদিকে শহুরে বানরদের কেবল পর্যটকদের মুখাপেক্ষী হয়েই থাকতে হয়।

ডেইলি মেইল আনলাইনে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, খাবারের খোঁজে এগিয়ে চলেছিল একটি বানর। একটু এগোতেই একটা কলা খুঁজে পায় সে। খাবার তুলে হাতে নেয়া মাত্রই ঘনিয়ে আসে বিপদ। একেবারে রে রে করে তেড়ে আসে বানরের দল।

কলাটি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টায় দ্রুততার সঙ্গে একপাল বানর তাড়া করে খাবার কুড়িয়ে নেওয়া বানরটিকে। রাস্তার এপার থেকে ওপার পর্যন্ত দৌঁড় লাগায় বানরের পাল।

তবু লড়াই যেন থামতেই চায় না। বানরের পালের এমন রণমূর্তি দেখে হতবাক হয়ে যান স্থানীয় দোকানদাররাও।  পরিস্থিতি বুঝে ধাতস্থ হতে বেশ খানিকক্ষণ সময় লেগেছে তাঁদের।

আমারসংবাদ/এআই