সোমবার ১৯ অক্টোবর ২০২০

৪ কার্তিক ১৪২৭

ই-পেপার

আমার সংবাদ ডেস্ক

অক্টোবর ১০,২০২০, ০১:০০

অক্টোবর ১০,২০২০, ০১:০০

বাবার ছিল ১২৫ স্ত্রী, ছেলেরও আসক্তি কুমারি নারীতে

সোয়াজিল্যান্ডে এখনও রাজতন্ত্র বিদ্যমান। সেখানকার শাসনভার রয়েছে রাজার হাতে। বর্তমানে সে দেশের রাজা কিং মাসাওয়াতি তৃতীয়। বর্তমানে তার ১৫ জন স্ত্রী রয়েছেন। প্রতিবারই একজন কুমারি মেয়েকে বিয়ে করছেন তিনি।

তার বাবা দ্বিতীয় সোবহুজা ৮২ বছর বয়সে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ান। তার আনুষ্ঠানিক জীবনিকারকের মতে ক্ষমতা ছাড়ার সময়ে তার স্ত্রীর সংখ্যা ছিল প্রায় ১২৫ জন।

রাজা তৃতীয় মাসাওয়াতি নিজ দেশে ‘দ্য লায়ন’ হিসেবে পরিচিত। বহু স্ত্রী আর ঐতিহ্যবাহী পোষাকে আন্তর্জাতিক মঞ্চে উপস্থিতির জন্য বিশ্বজুড়ে পরিচিতি রয়েছে তার।

তার বাবা সাবেক রাজা সভুজা দ্বিতীয় ১২৫ জনেরও বেশি নারীকে বিয়ে করেছিলেন। আর তার সন্তান বর্তমান রাজা ১৯৮৬ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে রাজা হন।

এরপর এক এক করে ১৬ জন নারীকে বিয়ে করেছেন। প্রতিবারই একজন কুমারি মেয়েকে বিয়ে করছেন তিনি। এর মধ্যে তিনজন স্ত্রীকে তালাকও দিয়েছেন।

জানা গেছে, স্ত্রীদের গর্ভে ৩৫ জন সন্তান জন্ম নিয়েছে। রানি বেছে নেয়ার নিয়মাও রয়েছে সে দেশে। দেশের সমস্ত কুমারি মেয়েদের প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় রানিদের থাকার জায়গা লুদজিদিনি রয়্যাল রেসিডেন্সে।

তারপর সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় এনগাবেজওয়ানি রয়্যাল রেসিডেন্টস-এ। পরবর্তী সময়ে এমবাবানের রয়্যাল প্যালেসে আয়োজিত হয় বর্ণাঢ্য প্যারেডের। সেখানে কুমারীত্বের প্রতীক হিসেবে ছুরি হাতে অংশ নেন কুমারি নারীরা।

অনুষ্ঠান দেখতে আসা অতিথি এবং রাজার সামনে পদযাত্রায় অংশ নেন তারা। এরপর রাজা তাদের মধ্য থেকে একজনকে নতুন রানি হিসেবে চয়েজ করে নেন।  

সূত্র : মারাভি পোস্ট

আমারসংবাদ/এআই