বুধবার ২১ অক্টোবর ২০২০

৫ কার্তিক ১৪২৭

ই-পেপার

এস এ চৌধুরী জয়, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার)

সেপ্টেম্বর ২৪,২০২০, ০৯:০০

সেপ্টেম্বর ২৪,২০২০, ০৯:০০

বিএনপির আহবায়ক কমিটিতে বিতর্কিতদের স্থান, ১৪ নেতার পদত্যাগ

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিবসহ একযোগে ১৪ জন পদত্যাগ করেছেন। তবে একটি সূত্র বলছে এখনো অনেক যোগ্য নেতৃবৃন্দ দলে রয়েছেন।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ ফেব্রুয়ারী বিএনপির (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল) কমলগঞ্জ উপজেলা শাখার গঠিত কমিটিকে আরও কার্যকর করার লক্ষ্যে ১৯ সেপ্টেম্বর ৩১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি পুনর্গঠন করা হয়। যাহা গত ২০ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান এর যৌথ স্বাক্ষরে অনুমোদন করা হয়।

এদিকে নানান অভিযোগ তোলে ধরে পুনর্গঠিত ওই আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব অলি আহমদ খাঁন, সদস্য- মো: দুরুদ আহমদ, মো: সিরাজুল ইসলাম, মো: আবুল হোসেন, বীরবল প্রসাদ, তোয়াবুর রহমান, আহমদুর রহমান খোকন, লক্ষীমোহন সিংহ, আব্দুল মন্নান, সফিকুল ইসলাম সুফি, মো: আব্দুল মনাফ, মো: সবুজর রহমান, মো: নজরুল ইসলাম (মনির) ও মো: চাঁন মিয়া বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি বরাবর গত ২৩ সেপ্টেম্বর সাবেক সদস্য সচিব দুরুদ আহমাদ এর পদত্যাগের ফটোকপি সংযুক্ত করে পদত্যাগ পত্র দেন।

এছাড়াও পদত্যাগ পত্রের অনুলিপি হিসাবে বিএনপির মহাসচিব, ভাইস চেয়ারম্যান (্ডা: এ জেড এম জাহিদ হোসেন), সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক (ডা: সাখাওয়াত হাসান জীবন), সাধারণ সম্পাদক, মৌলভীবাজার জেলা শাখা ও আহবায়ক, কমলগঞ্জ উপজেলা শাখাকে প্রেরণ করা হয়।

বিষয়টির ব্যাপারে পদত্যাগকারি সদস্য সচিব অলি আহমদ খাঁনের মোবাইল ফোনে আজ বিকেলে একাধিকবার চেস্টা করে রিং বাজলেও কল রিসিভ হয় নাই।

তবে পদত্যাগকারি আবুল হোসেন বলেন, পুনঃগঠিত কমিটির আহবায়ককে জেলা থেকে আমাদের উপর চাপিয়ে দেয়া হয়েছে। তাছাড়া উক্ত কমিটির অনেকেই বিগত জাতীয় নির্বাচনে ধানের শীষের পক্ষে ছিলেন না বিধায় বিভিন্ন সময়ে আমরা তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেও কোন সুরাহা পাই নাই। বরং উল্টো তাদের কমিটিতে পদায়ন করা হয়েছে। এজন্য আমরা পদত্যাগ করেছি।

অপর সদস্য আহমদুর রহমান খোকন বলেন, দলীয় কর্মকাণ্ডে নিষ্ক্রিয় ও বিগত সময়ে ধানের শীষ প্রতীকের দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থানকারিদের উক্ত কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। ফলে তাদের সাথে কাজ করা সম্ভব নয় বিধায় পদত্যাগ করেছি।

জনৈক ব্যক্তির মন:প্রতূ না হওয়াতে উনার অনুসারীরাই পদত্যাগ করেছেন। তবে কমলগঞ্জের বর্ষীয়ান সকল নেতৃবৃন্দ উক্ত কমিটিতে রয়েছেন বলে বিএনপি ঘরানার জনৈক এক নেতা দাবি করে আরও বলেন।

মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো: মিজানুর রহমান আমার সংবাদকে বলেন, গতকাল (বুধবার) ফেসবুকের মাধ্যমে পদত্যাগের খবর জেনেছি কিন্তু পদত্যাগ পত্রের কোন কপি এখন পর্যন্ত আমার কাছে আসেনি।

আমারসংবাদ/এমআর