শুক্রবার ০৭ আগস্ট ২০২০

২২ শ্রাবণ ১৪২৭

ই-পেপার

রফিকুল ইসলাম

প্রিন্ট সংস্করণ

জুলাই ২৯,২০২০, ০২:২০

জুলাই ২৯,২০২০, ০২:২০

সারাদেশে বন্যাদুর্গতদের সাহায্যার্থে আ.লীগের ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ

দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যাদুর্গত মানুষের সাহায্যে ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বানভাসিদের খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি, ওষুধ, শুকনা খাবার সরবরাহ ও বন্যা-পরবর্তী সময়ে দলের পক্ষ থেকে বন্যায় ঘরবাড়িহারা মানুষদের পুনর্বাসন। দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এই কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি দলীয়ভাবে দলের তহবিল থেকে এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।  

জানা গেছে, চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনার পাশাপাশি দেশের বন্যা আরও দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ইতোমধ্যে ঘরবাড়ি ছেড়ে পরিবার-পরিজন, গৃহপালিত পশু ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে উঁচু বাঁধ, পাকা সড়ক ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিয়েছে লাখ লাখ বানভাসি। তাদের অধিকাংশই খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশনের অভাবে মানবেতর দিন কাটাচ্ছে।

দেশের বন্যাকবলিত ওই মানুষের পাশে থাকার জন্য দলীয়ভাবে আওয়ামী লীগের সকল ইউনিটের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তারা বানভাসিদের খাদ্যসামগ্রী ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত এবং বন্যা-পরবতী সময়ে পুনর্বাসন করবেন। এজন্য বন্যাদুর্গত জেলা-উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করতে শুরু করেছে দলটির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা।  

জানা গেছে, ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে কমিটি গঠনের জন্য দলটির কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি গত রোববার বিকালে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে এক অনির্ধারিত বিশেষ সভায় ভিডিওকলের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এই নির্দেশ দেন।

এসময় তিনি বলেন, বন্যাদুর্গত এলাকার ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলার জন্য যথেষ্ট সরকারি বরাদ্দের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বন্যা দীর্ঘমেয়াদি হতে পারে। সারা দেশে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং দলীয় জনপ্রতিনিধিদের বন্যাকবলিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। বন্যাকবলিত এলাকায় বন্যার্তদের সহায়তা ও পুনর্বাসন কার্যক্রমে সহায়ক ভূমিকা পালনের জন্য কমিটি গঠন করতে হবে।

দলীয় সভানেত্রীর এমন নির্দেশনার পর রাতেই বন্যাকবলিত জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেন দলটির দায়িত্বশীল নেতারা।জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার পর বন্যাকবলিত মানুষের পাশে থাকতে জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

একই সাথে মূল দলসহ সকল সহযোগী সংগঠনের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করতেও বলা হয়েছে। বন্যাকবলিত এলাকা মনিটরিং করার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে প্রয়োজনীয় সকল নির্দেশনা দেয়া হবে।

খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, প্রতিদিন হু হু করে বাড়ছে দেশের মধ্য ও নিম্নাঞ্চলের জেলাতে বন্যার প্রকোপ। বন্যাদুর্গত মানুষ খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশনের অভাবে নিদারুন কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। বন্যা আরও দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার শঙ্কায় ঘরবাড়ি ছেড়ে পরিবার-পরিজন, গৃহপালিত পশু ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে উঁচু বাঁধ, পাকা সড়ক ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিয়েছে বানভাসি মানুষ।

বর্তমানে পানিবাহিত অসুখ-বিসুখের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলেও প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা পাচ্ছে না বন্যাদুর্গত নারী-পুরুষ ও শিশুরা। সরকারের পক্ষ থেকে বন্যাদুর্গতদের জন্য ত্রাণ ও নগদ অর্থসহ নানামুখী উদ্যোগ নিলেও তাও পর্যাপ্ত নয়। নেই বেসরকারি উদ্যোগও।

ফলে পরিবার-পরিজন নিয়ে অনাহার-অর্ধাহারে নিদারুণ কষ্টে দিনাতিপাত করছেন বানভাসিরা। আ.লীগ নেতাদের দাবি— সৃষ্টিলগ্ন থেকেই দেশে বন্যা, খরা, জলোচ্ছ্বাস, ঘূর্ণিঝড়, ভূমিকম্প, পাহাড় ধস ও নদীভাঙনসহ যেকোনো দুর্যোগ এবং দুর্বিপাকে মানুষের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য। দেশ ও দেশের মানুষের স্বার্থে কখনো পিছপা হননি দলটির নেতাকর্মীরা।

বিগত দিনের সেই ধারাবাহিকতায় বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি মাথায় নিয়ে বন্যাকবলিত মানুষের পাশে থাকবে দলটির জেলা-উপজেলার নেতাকর্মীরা। ইতোমধ্যে দলটির বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করতে শুরু করেছে দলটি। গঠিত টিমের মাধ্যমে বানভাসিদের খাদ্যসামগ্রী নিশ্চিত, চিকিৎসাসেবা এবং বন্যা-পরবর্তী সময়ে পুনর্বাসন করবেন।  

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণবিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী আমার সংবাদকে বলেন, দেশে বন্যা, খরা, জলোচ্ছ্বাস, ঘূর্ণিঝড় ও নদীভাঙনসহ যেকোনো দুর্যোগ এবং দুর্বিপাকে মানুষের পাশে থাকাই আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় বিগত দিনের সেই ধারাবাহিকতায় আমরা সবাই বন্যার্তদের পাশে আছি। আগামীতেও এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।

আমারসংবাদ/এসটিএম